ধর্ষণের ঘটনা বৃদ্ধির প্রতিবাদে এমজেএফসহ নারী অধিকার সংগঠনের ক্ষোভ

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক নারীকে বিবস্ত্র করে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ও এর ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়ানোর ঘটনায় চরম ক্ষোভ ও উৎকণ্ঠা প্রকাশ করেছে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন (এমজেএফ), আইন ও সালিশ কেন্দ্র, নারীপক্ষ, ব্রেকিং দ্যা সাইলেন্স, প্রাজ্ঞস্বর, সিডাব্লিউসিএস এবং উই ক্যানসহ এমজেএফ এর সহযোগী সংগঠনসমূহ।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক নারীকে বিবস্ত্র করে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ও এর ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়ানোর ঘটনায় চরম ক্ষোভ ও উৎকণ্ঠা প্রকাশ করেছে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন (এমজেএফ), আইন ও সালিশ কেন্দ্র, নারীপক্ষ, ব্রেকিং দ্যা সাইলেন্স, প্রাজ্ঞস্বর,  সিডাব্লিউসিএস  এবং উই ক্যানসহ এমজেএফ এর সহযোগী সংগঠনসমূহ। সংগঠনগুলো এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও অপরাধীদের প্রতি ধিক্কার জানিয়েছে।

এক বিবৃতিতে এমজেএফের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম বলেন, ‘এই ঘটনায় আমরা স্তম্ভিত হয়ে গিয়েছি এবং গভীরভাবে দুঃখপ্রকাশ করছি। বর্তমান সময়ে অপরাধী দণ্ড থেকে অব্যাহতি পাওয়ার সংস্কৃতির কারণে এই ধরনের ঘটনা বেশি ঘটছে। নারীরা খুব কমই তাদের ওপর হওয়া নিপীড়নের বিচার পেয়ে থাকেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘ধর্ষণ ও সংঘবদ্ধ ধর্ষণের মতো ভয়াবহ ঘটনা সমাজে ক্রমশ বেড়েই চলেছে। ধর্ষণের অপরাধ অজামিনযোগ্য অপরাধ। এরপরও ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত আসামি জামিন পাচ্ছে। আইনের বিভিন্ন ফাঁক গলিয়ে এবং রাজনৈতিক শক্তি খাটিয়ে তারা জামিন নিয়ে বের হয়ে আসছে।’

আইন ও সালিশ কেন্দ্র জানিয়েছে চলতি বছরের প্রথম নয় মাসে ৯৭৫ জন নারী ও শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এরমধ্যে ২০৮ জন সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন।

ধর্ষণের ঘটনায় দৃষ্টান্তমূলকভাবে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানিয়ে সংগঠনগুলো বলছে, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হচ্ছে না বলেই ভয়াবহ এই অপরাধ বাড়ছে।

Comments

The Daily Star  | English

Release of ship, crew: KSRM keeps mum on ransom

The hijacked Bangladeshi ship MV Abdullah and its 23 crewmen were freed as negotiation with the pirates adhering to international rules paid results, the ship-owning firm KSRM Group has informed.

1h ago