ফিঞ্চকে আউট না করে অশ্বিনের বছরের প্রথম ও শেষ হুঁশিয়ারি!

এই ম্যাচে রান তাড়ায় যাওয়া বেঙ্গালুরু ব্যাটসম্যান অ্যারন ফিঞ্চ নন স্ট্রাইকিং প্রান্তে বল ছাড়ার আগেই ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে গিয়েছিলেন। বল করতে থাকা অশ্বিনের সুযোগ ছিল তাকে আউট করে ফেরত পাঠানোর। তা না করে ফিঞ্চকে সুযোগ দেন ভারতীয় তারকা। তবে কি নিজের মত বদলেছেন এই স্পিনার?
ছবি: টুইটার থেকে নেওয়া

ক্রিকেট মানকাড আউট নিয়ে নৈতিক বিতর্ক থাকলেও নিয়মতান্ত্রিক এই আউটের পক্ষে বরাবরই সোচ্চার রবীচন্দ্রন অশ্বিন। বল ছাড়ার আগেই বেরিয়ে যাওয়া ব্যাটসম্যানদের কেন অবৈধ সুবিধা দেওয়া হবে, এই প্রশ্ন তুলেন তিনি। সেই অশ্বিনই মানকাড আউট না করে সুযোগ দিয়েছেন অ্যারন ফিঞ্চকে। তবে পরে টুইটারে জানিয়েছেন, এটা তার বছরের প্রথম ও আনুষ্ঠানিক শেষ হুঁশিয়ারি বার্তা।

সোমবার রাতে দুবাইতে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে ম্যাচ ছিল দিল্লি ক্যাপিটালসের। দিল্লির ১৯৬ রান টপকাতে গিয়ে ১৩৭ রানেই থেমে যায় বেঙ্গালুরু।

এই ম্যাচে রান তাড়ায় যাওয়া বেঙ্গালুরু ব্যাটসম্যান অ্যারন ফিঞ্চ নন স্ট্রাইকিং প্রান্তে বল ছাড়ার আগেই ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে গিয়েছিলেন। বল করতে থাকা অশ্বিনের সুযোগ ছিল তাকে আউট করে ফেরত পাঠানোর। তা না করে ফিঞ্চকে সুযোগ দেন ভারতীয় তারকা।

তবে কি নিজের মত বদলেছেন এই স্পিনার? এমন কৌতূহলে পানি ঢেলে টুইটারে অশ্বিন জানিয়েছেন, এটা ছিল কেবল তার হুঁশিয়ারি বার্তা,  ‘আমি পরিষ্কার করতে চাই। এটা ২০২০ সালে আমার প্রথম ও শেষ হুঁশিয়ারি। আমি এখন আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে রাখলাম। পরে কেউ আমাকে দোষ দিবেন না। আর ফিঞ্চ আমার ভালো বন্ধু।’

টুইটটি অশ্বিন ট্যাগ করেন দলের কোচ রিকি পন্টিংকেও। পন্টিং অবশ্য মানকাড আউটের পক্ষে না। অশ্বিন ফিঞ্চকে আউট করছেন না দেখে ডাগ আউটে পন্টিংকে হাসতেও দেখা গেছে।

এসময় ধারাভাষ্যকারদেরও আলাপের খোরাক যোগায় তা। সাবেক কিউই ক্রিকেটার সাইমন ডুল, অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার মাইকেল স্ল্যাটার ও ভারতীয় কিংবদন্তি সুনিল গাভাস্কার দেন নিজেদের মত।

ডুল প্রশংসা  অশ্বিনের প্রশংসা করেন এভাবে,  ‘চমৎকার, তাকে (ফিঞ্চ) সতর্ক করা হলো। ঠিকই আছে। তবে অশ্বিন আউট করে দিলেও আমার আপত্তি থাকত না। বোলারদের পা মিলিমিটার বাইরে গেলেও তো নো ডাকা হয়। তাইলে ব্যাটসম্যানরা এভাবে ক্রিজ ছেড়ে একটুও বেরুতে পারে না।’

স্লাটার বলেন, ‘সতর্ক করাতে আমি সমস্যা দেখি না, ঠিক আছে।’

গাভাস্কার দেন ভিন্ন মত। তার প্রশ্ন, ছক্কা মারার আগে কি ব্যাটসম্যানরা বোলারদের সতর্ক করেন, ‘ব্যাটসম্যান যখন ছক্কা পেটায়, তখন কি বোলারকে বলে তোমাকে এবার ছক্কা মারব? তারা তো বলের মান দেখে শট মারে।’

নন স্ট্রাইকিং প্রান্তের ব্যাটসম্যান বোলারের বল ছাড়ার আগে বেরিয়ে যাওয়া বৈধ নয়। এমন পরিস্থিতিতে বোলার বল না করে যদি নন স্ট্রাইকিং প্রান্তের উইকেট ভেঙ্গে দেন, তবে ব্যাটসম্যানকে আউট হয়ে ফিরতে হয়। ক্রিকেটে নিয়ম সিদ্ধ এই আইন নিয়ে আছে নৈতিক বিতর্ক। ভারতের সাবেক ক্রিকেটার ভিনু মানকড় এ ধরনের আউট করে আলোচনায় এলে এই আউটের সঙ্গে জড়িয়ে যায় তার নাম।

তবে সুতো পরিমাণ ব্যবধানেও অনেক ব্যাটসম্যানের রান আউটের হাত থেকে বেঁচে যাওয়ার প্রসঙ্গ টেনে, অনেক ক্রিকেটারই এখন বলেন- নৈতিকতার সুর তুলে ব্যাটসম্যানদের বাড়তি সুবিধা দেওয়া অন্যায়। তার পক্ষে সাম্প্রতিক সময়ে সবচেয়ে বেশি সোচ্চার অশ্বিন।

 

Comments

The Daily Star  | English

Old, unfit vehicles taking lives

The bus involved in yesterday’s crash that left 14 dead in Faridpur would not have been on the road had the government not given into transport associations’ demand for keeping buses over 20 years old on the road.

2h ago