সাদমানের ঝলমলে ব্যাটিং, নেমেই রান পেলেন তামিম

ফল ছিল না মুখ্য, দরকার ছিল ম্যাচের আবহে অনুশীলন।
tamim shadman and mustafiz
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

ওপেন করতে নেমে দুই ওপেনার তামিম ইকবাল আর সাদমান ইসলাম দেখালেন ঝলক। সাবলীল ব্যাটিংয়ে দুজনেই পেলেন ফিফটির দেখা। বৃষ্টিবিঘ্নিত দুই দিনের দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচের শেষ দিনের মূল আকর্ষণ হয়ে রইল তাদের মুন্সিয়ানা।

কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে জাতীয় দলের বিশেষ ক্যাম্পের প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেননি তামিম। দ্বিতীয়টিতে ফিরলেন, দীর্ঘদিন পর যেকোনো পর্যায়ের কোনো ম্যাচ খেলতে নামলেও তার ব্যাটে ছিল না জড়তা। বেশ আগ্রাসী মেজাজে খেলেই রান করেছেন তিনি। চোট কাটিয়ে ফেরা আরেক ওপেনার সাদমান ছিলেন আরও উজ্জ্বল।

মঙ্গলবার মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তামিমদের রায়ান কুক একাদশ ৪ উইকেটে ২০০ রান করে জয় তুলে নিয়েছে। তবে ফল ছিল না মুখ্য, দরকার ছিল ম্যাচের আবহে অনুশীলন। তাতে ভালোই স্বস্তি পাবেন তামিম। বাংলাদেশের সেরা ওপেনার ৮০ বলে ১০ চারে করেছেন ৬৪ রান। ৮ চার ও ১ ছক্কায় ৯৯ বলে আরেক বাঁহাতি সাদমানের ব্যাট থেকে এসেছে ৮৩ রান। অফ স্পিনার মোসাদ্দেক হোসেনের বলে বোল্ড না হলে পেতে পারতেন সেঞ্চুরি।

ব্যাটসম্যানরা রান পেলেও বোলারদের কেউ আলো ছড়াতে পারেননি। লাল বলের চুক্তিতে না থাকা মোস্তাফিজুর রহমান এই ম্যাচেও ছিলেন বিবর্ণ। ৮ ওভার বল করে ৩৮ রান নিয়ে পাননি উইকেটের দেখা। অফ স্পিনার নাঈম হাসান ৪৯ রানে নেন ২ উইকেট। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ওটিস গিবসন একাদশ: ৭২ ওভারে ২৪৮/৮ (সাইফ ৭, ইমরুল ৫৯, শান্ত ২, মাহমুদউল্লাহ ৫৬, লিটন ৪৪, সৌম্য ২৬, মোসাদ্দেক ২৯*, নাঈম ৮, ইবাদত ০, রুবেল ০*; তাসকিন ৩/৪২, সাইফউদ্দিন ১/৪২, খালেদ ০/৩১, আল আমিন ১/৩৬, তাইজুল ১/৭৬, মিঠুন ২/১০)

রায়ান কুক একাদশ: (লক্ষ্য ৪৩ ওভারে ২০০)  ৪১.৪ ওভারে ২০১/৪  (তামিম ৬৪, সাদমান ৮৩, মুমিনুল ১০, মুশফিক ১১, ইয়াসির ২৪*, মিঠুন ৫*; মোস্তাফিজ ০/৩৮, ইবাদত ০/৪০, নাঈম ২/৪৯, রুবেল ১/৩৩, মাহমুদউল্লাহ ০/১৮, মোসাদ্দেক ১/২১)।

Comments

The Daily Star  | English

Old, unfit vehicles running amok

The bus involved in yesterday’s accident that left 14 dead in Faridpur would not have been on the road had the government not caved in to transport associations’ demand for allowing over 20 years old buses on roads.

6h ago