করোনা আক্রান্ত ট্রাম্পের বিতর্কে অংশ নেওয়া ঠিক হবে না: বাইডেন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের করোনা আক্রান্ত অবস্থায় দ্বিতীয় প্রেসিডেনশিয়াল বিতর্কে অংশ নেওয়া ঠিক হবে না বলে জানিয়েছেন ট্রাম্পের প্রতিদ্বন্দ্বী ও ডেমোক্রেট দলের মনোনীত প্রার্থী জো বাইডেন।
জো বাইডেন। ছবি: রয়টার্স

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের করোনা আক্রান্ত অবস্থায় দ্বিতীয় প্রেসিডেনশিয়াল বিতর্কে অংশ নেওয়া ঠিক হবে না বলে জানিয়েছেন ট্রাম্পের প্রতিদ্বন্দ্বী ও ডেমোক্রেট দলের মনোনীত প্রার্থী জো বাইডেন।

সিএনএন জানায়, আগামী ১৫ অক্টোবর দ্বিতীয় প্রেসিডেনশিয়াল বিতর্ক অনুষ্ঠিত হবে।

মঙ্গলবার মেরিল্যান্ডে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি তার (ট্রাম্পের) যদি এখনো কোভিড থাকে, তবে আমাদের বিতর্কে অংশ নেওয়া উচিত হবে না। আমাদের খুব কঠোর নির্দেশিকা অনুসরণ করতে হবে। অনেক মানুষ এই ভাইরাসে সংক্রামিত হয়েছেন, এটি একটি অত্যন্ত গুরুতর সমস্যা।’

তবে ট্রাম্প বিতর্কে অংশ নিতে চাইলে চিকিত্সা বিশেষজ্ঞদের পরামর্শের ভিত্তিতে বিতর্কে অংশ নেওয়ার বিষয়টি বিবেচনা করবেন বাইডেন।

তিনি বলেন, ‘আমি ক্লিভল্যান্ড ক্লিনিকের গাইডলাইন মেনে চলবো। যদি তিনি বির্তকে অংশ নিতে চান তবে চিকিৎসকরা যা বলবে তাই মেনে চলাটা হবে সঠিক কাজ।’

সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট বাইডেন আরও জানান, দ্বিতীয় প্রেসিডেনশিয়াল বিতর্কের জন্য তিনি অপেক্ষায় আছেন। আগামী বৃহস্পতিবার মিয়ামিতে এটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।  

তিনি বলেন, ‘আমি তার সুস্থ হওয়া ও বিতর্ক করতে সক্ষম হওয়ার অপেক্ষায় আছি। তবে আমি আশা করি সমস্ত প্রোটোকল অনুসরণ করা হবে, সেই সময়ে যা কিছু প্রয়োজন তা করা হবে।’

সোমবার ওয়াল্টার রিড ন্যাশনাল মিলিটারি মেডিকেল সেন্টার ছেড়ে হোয়াইট হাউজে ফিরেছেন করোনা আক্রান্ত প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। গত বৃহস্পতিবার করোনা পজেটিভ শনাক্ত হন তিনি।

ট্রাম্প জানান, করোনা পজেটিভ হওয়া সত্ত্বেও পরবর্তি বিতর্কে অংশ নেওয়ার পরিকল্পনা করছেন তিনি।

এক টুইটে ট্রাম্প বলেন, ‘আমি আগমী ১৫ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মিয়ামির বিতর্ক অনুষ্ঠানের অপেক্ষায় আছি। এটা দারুণ হবে।’

এদিকে, কীভাবে অন্য দুটি প্রেসিডেনশিয়াল বিতর্ক নিরাপদে আয়োজন করা যায় এ নিয়ে ভাবছেন আয়োজকরা। একটি সম্ভাব্য বিকল্প হলো ভার্চুয়াল বিতর্কের আয়োজন করা।

কমিশনের একজন সদস্য পরিচয় প্রকাশ না করার শর্তে সিএনএনে বলেন, ‘কমিশন বিতর্কগুলো ভার্চুয়ালি করা যায় কিনা এ নিয়ে ভাবছেন।’

সোমবার, ট্রাম্পের চিকিৎসক শন কনলি জানান, ট্রাম্প বাসায় ফিরে যাওয়ার মতো সুস্থ আছেন। তবে, পুরোপুরি স্বাভাবিক জীবনে ফেরার মতো সেরে ওঠেননি।

এদিকে, সোমবার ভাইরাসের সংক্রমণের জন্য ট্রাম্পকে দোষারোপ করেছেন জো বাইডেন। তিনি জানান, ধারাবাহিকভাবে মাস্ক পরতে ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে অস্বীকৃতি জানানোর কারণেই ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন তিনি।

মায়ামির একটি এনবিসি টাউন হলে বাইডেন বলেন, ‘ভাইরাসটিতে সংক্রমিত হয়েছেন এমন ব্যক্তিরা সাধারণত মাস্কে ব্যবহার, সামাজিক দূরত্ব মানা এগুলো বিবেচনা করে না। আমি মনে করি তাদের ক্ষেত্রে যা ঘটে এজন্য তাদের দায়সারা ভাবই দায়ী।’

বুধবার, ২০২০ নির্বাচনী বিতর্কে মুখোমুখি হবেন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ও কমলা হ্যারিস। পেন্স সম্প্রতি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এমন বেশ কয়েকজনের সংস্পর্শে এসেছিলেন। গত কয়েকদিনে বেশ কয়েকবার তার করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ শনাক্ত হয়। 

Comments

The Daily Star  | English
‘Farmer, RMG workers, migrants main drivers of Bangladesh economy in first 50 years’

‘Farmer, RMG workers, migrants main drivers of Bangladesh economy in first 50 years’

However, their contribution would not remain the same in the years to come, says a book published from London

1h ago