শীর্ষ খবর

রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত শিশুর মৃত্যু

সশস্ত্র রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হামলায় গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক রোহিঙ্গা শিশু মারা গেছে।

সশস্ত্র রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হামলায় গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক রোহিঙ্গা শিশু মারা গেছে।

মৃত শিশুর নাম জিয়াবুর রহমান (১৪)। সে উখিয়ার কুতুপালং নিবন্ধিত রোহিঙ্গা শিবিরের ই ব্লকের মো. আরিফ উল্লাহর ছেলে।

কুতুপালং নিবন্ধিত রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরের রোহিঙ্গা কমিউনিটির নেতা (চেয়ারম্যান) হাফেজ জালাল আহমদ বলেন, ‘গত ৬ অক্টোবর রাত ৮টার দিকে বিবাদমান দুই রোহিঙ্গা গ্রুপের মধ্যে যে রক্তক্ষয়ী সহিংসতার ঘটনা ঘটেছিল সেদিন সন্ত্রাসীরা অপহরণ করে গোপন স্থানে আটকে নির্মম নির্যাতন চালায় শিশু জিয়াবুরের উপর। অপহরণের দুদিন পর গত ৮ অক্টোবর সন্ত্রাসীরা আহত অবস্থায় শিবিরের একটি সেতুর নীচে ফেলে যায় শিশুটিকে। ওইদিন রাতে তাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ ভোররাত ৩টায় সে মারা যায়।’

কুতুপালং রোহিঙ্গা নিবন্ধিত শিবিরের ক্যাম্প ইনচার্জ খলিলুর রহমান জিয়াবুর রহমানের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা শাহীন মোহাম্মদ আব্দুর রহমান নিশ্চিত করেছেন যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক রোহিঙ্গা শিশু মারা গেছে। তার মরদেহ ময়নাতদন্ত হবে কিনা, সে বিষয়ে এখনও পুলিশ কিছু জানায়নি বলে যোগ করেন এই চিকিৎসা কর্মকর্তা।

গত ৬ অক্টোবর রাতে কুতুপালং রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরে নিজেদের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই রোহিঙ্গা সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপের মধ্যে সংঘটিত সহিংসতার ঘটনায় ঘটনাস্থলে একজন স্থানীয় বাংলাদেশি মাইক্রোবাস চালকসহ চার জন খুন হন। আহত হন অন্তত ২০ জন। এ ঘটনায় রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত বাংলাদেশি এক মাইক্রোবাস চালক গত বৃহস্পতিবার সন্ত্রাসীদের আস্তানা থেকে ছাড়া পান গুরুতর আহত অবস্থায়। তার নাম নুরুল বশর।

Comments

The Daily Star  | English

MV Abdullah passing through high-risk piracy area

Precautionary safety measures in place, Italian Navy frigate escorting it

1h ago