শীর্ষ খবর

মানিকগঞ্জে নিপীড়নবিরোধী ছাত্রজোট গঠন

মানিকগঞ্জে নিপীড়নবিরোধী ছাত্র জোট গঠন করা হয়েছে। আজ শনিবার জেলা উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় এই সংগঠনটি গঠিত হয়। ছাত্র ইউনিয়ন জেলা শখার সভাপতি এমআর লিটনকে আহ্বায়ক ও রাসেল আহম্মেদকে সদস্যসচিব করে ১১ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়।
কমিটির আহ্বায়ক এমআর লিটন ও সদস্যসচিব রাসেল আহম্মেদ (বাম দিক থেকে)। ছবি: সংগৃহীত

মানিকগঞ্জে নিপীড়নবিরোধী ছাত্র জোট গঠন করা হয়েছে। আজ শনিবার জেলা উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় এই সংগঠনটি গঠিত হয়। ছাত্র ইউনিয়ন জেলা শখার সভাপতি এমআর লিটনকে আহ্বায়ক ও রাসেল আহম্মেদকে সদস্যসচিব করে ১১ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটির অন্যান্যরা হলেন— যুগ্ম আহ্বায়ক মো. জাহাঙ্গীর আলম, অনিকা হোসাইন, রোকনুজ্জামান রাসেল, রোকেয়া সুলতানা তাইবা ও শাহিনুর রহমান এবং সদস্য জাকির হোসেন রুবেল, আমির হামজা, সাবিনা ইয়াসমিন আঁখি ও মোহাম্মদ মাহবুবুল আলম।

সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান মাস্টার, উদীচী জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মামুনসহ কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

সভায় বক্তারা বলেন, সারাদেশে অব্যাহত নারী-শিশু নির্যাতন, ধর্ষণ-নিপীড়ন ও সব ধরনের সংহিসতা বন্ধ করতে সরকারকে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। নারীর প্রতি বৈষম্যমূলক সব আইন-প্রথা বিলোপ করতে হবে। ধর্ষক-নিপীড়কদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

বক্তারা আরও বলেন, করোনাকালে দেশের শিক্ষাব্যবস্থার তীব্র সংকট চলছে। যার ফলে দেশের ৩০ ভাগ শিক্ষার্থী ঝরে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। বর্তমান অনলাইন শিক্ষাব্যবস্থার মাধ্যমে শিক্ষাবৈষম্য স্পষ্ট হয়েছে। ধনী পরিবারে সন্তানরা শিক্ষার সুযোগ পেলেও গরিব পরিবার সন্তানরা মৌলিক অধিকার শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এসব অসহায়-গরিব পরিবারে রেডিও, টিভি কিংবা ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ নেই। যার ফলে তারা ক্লাস করতে পারছে না। শিক্ষা সংকট ও বৈষম্য মোকাবিলায় সরকারকে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে হবে।

শিক্ষার্থীদের বেতন-ফি ও মেস-বাসা ভাড়া মওকুফ করার দাবিও জানান বক্তরা।

নবগঠিত কমিটির আহবায়ক এমআর লিটন বলেন, সব ধরনের শোষণ-বৈষম্য-নির্যাতন-নিপীড়নের বিরুদ্ধে ছাত্র-জনতার ঐক্যবদ্ধ সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতেই মানিকগঞ্জে নিপীড়নবিরোধী ছাত্র জোট গঠন করা হয়েছে। সংগঠনটি শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন অধিকার আদায়, প্রচলিত শিক্ষাব্যবস্থার বদলে গণমুখী শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তন ও মেহনতি গণমানুষের অধিকার আদায়ের জন্য ও সুন্দর সমাজ বিনির্মাণে কাজ করে যাবে।

Comments