অবশেষে স্বপ্নের নায়কের বিপক্ষে খেললেন এমবাপে

ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো যে কিলিয়ান এমবাপের প্রিয় খেলোয়াড় এবং আদর্শও মানে তাকে, তা বোধ করি অজানা নেই কারও। অনেকবারই সরাসরি বলেছেন এ ফরাসি। শৈশবে তার ঘর ভর্তি ছিল রোনালদোর ছবি। অবশেষে মাঠে এ দুই তারকার লড়াই দেখল সমর্থকরা। আগের দিন জাতীয় দলের জার্সি গায়ে নেমেছিলেন তারা। তবে ম্যাচে অবশ্য কেউ কাউকে হারাতে পারেননি।
ছবি: টুইটার

ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো যে কিলিয়ান এমবাপের প্রিয় খেলোয়াড় এবং আদর্শও মানে তাকে, তা বোধ করি অজানা নেই কারও। অনেকবারই সরাসরি বলেছেন এ ফরাসি। শৈশবে তার ঘর ভর্তি ছিল রোনালদোর ছবি। অবশেষে মাঠে এ দুই তারকার লড়াই দেখল সমর্থকরা। আগের দিন জাতীয় দলের জার্সি গায়ে নেমেছিলেন তারা। তবে ম্যাচে অবশ্য কেউ কাউকে হারাতে পারেননি।

২০১৮ সালের বিশ্বকাপ দিয়েই মূলত উত্থান এমবাপের। অবশ্য তার আগেই পিএসজির হয়ে নজর কেড়েছিলেন। কিন্তু আলোয় আসেন বিশ্বকাপ দিয়ে। তখনই তার ছোট বেলার একটি ছবি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়। সেখানে দেখা যায় তার ঘর ভর্তি রোনালদোর ছবি। তখন থেকেই এ দুই তারকার লড়াই দেখার অপেক্ষায় ছিল বিশ্ব। প্রিয় তারকার মুখোমুখি হলে কি করেন এ তরুণ।

আর আগের দিন সে স্বপ্ন পূরণ হয় সমর্থকদের। ঘরের মাঠে গত রাতে পর্তুগিজদের মোকাবেলা করে ফ্রান্স। আর রোনালদো-এমবাপের দ্বৈরথ উপভোগ করেছেন সমর্থকরা। ম্যাচে অবশ্য কেউ কাউকে ছাড় দেননি। দারুণ আক্রমণ পাল্টা আক্রমণের ম্যাচটি অবশ্য গোলশূন্য ড্র হয়। বেশ কিছু সুযোগ পেয়ে কাজে লাগাতে পারেনি কোনো দলই। সার সেখানে অনেকবারই মুগ্ধতার দৃষ্টিতে রোনালদোকে দেখেছেন এমবাপে।

অবশ্য রোনালদো যতই তার আদর্শ হন না কেন মাঠে তাকে কোনো ছাড় দিবেন না তা আগেই বলেছিলেন এমবাপে, 'শৈশব থেকে সে আমার নায়ক। তবে আমি একজন প্রতিদ্বন্দ্বী এবং একজন মানুষ যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা পছন্দ করি। আমি জয়, জয় এবং জয় চাই। তাই এটা আসলে কোনো ব্যাপার না যে আমার প্রতিপক্ষ কে। কার বিপক্ষে লড়াই করছি। আমি জিততে চাই।'

আর ম্যাচ শেষে তারই দুটি ছবি সামাজিক মাধ্যমে আপলোড করেছেন এমবাপে। সামাজিক মাধ্যম টুইটারে তা কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই প্রায় ৬ লাখ লাইক পেয়েছে। রি-টুইটও হয়েছে প্রায় এক লাখ বার। আর ছবি ক্যাপশনে রোনালদো ট্যাগ করে লিখেছেন 'আদর্শ'। পাশাপাশি একটি মুকুট ও গোটের প্রতীকী ইমোও দিয়েছেন এ তরুণ।

তবে উয়েফা ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচে গত ২৪ জুন ফ্রান্স পর্তুগালের ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সে ম্যাচটি বাতিল হয়ে যায়। তবে দেরিতে হলেও দুই তারকার লড়াই দেখল বিশ্ব।

Comments

The Daily Star  | English

Death came draped in smoke

Around 11:30, there were murmurs of one death. By then, the fire, which had begun at 9:50, had been burning for over an hour.

10m ago