পাকিস্তানের প্রধান নির্বাচকের পদ ছাড়লেন মিসবাহ

একই সঙ্গে প্রধান কোচ ও প্রধান নির্বাচক দুই ভূমিকায় দায়িত্ব পালন করে ব্যতিক্রমী উদাহরণ হয়েছিলেন মিসবাহ-উল হক। তবে দলের ব্যর্থতায় নানামুখী সমালোচনার মুখে প্রধান নির্বাচকের পদ ছেড়ে দিয়েছেন তিনি। এখন কেবল প্রধান কোচ হিসেবেই দায়িত্ব পালন করবেন সাবেক এই অধিনায়ক।
Misbah-ul-Haq
ছবি: এএফপি

একই সঙ্গে প্রধান কোচ ও প্রধান নির্বাচক দুই ভূমিকায় দায়িত্ব পালন করে ব্যতিক্রমী উদাহরণ হয়েছিলেন মিসবাহ-উল হক। তবে দলের ব্যর্থতায় নানামুখী সমালোচনার মুখে প্রধান নির্বাচকের পদ ছেড়ে দিয়েছেন তিনি। এখন কেবল প্রধান কোচ হিসেবেই দায়িত্ব পালন করবেন সাবেক এই অধিনায়ক।

গত বছর সেপ্টেম্বরে তাকে দুই দায়িত্বের ভার দিয়েছিল পিসিবি। এক বছরের কিছু বেশি সময় পর কেবল কোচের দায়িত্বেই মনোনিবেশ করার ইচ্ছা জানান মিসবাহ। বুধবার সংবাদ সম্মেলন করে পদত্যাগের কথা জানান সাবেক এই ক্রিকেটার। 

তবে ডিসেম্বরের ১ তারিখ নতুন প্রধান নির্বাচক আসা পর্যন্ত নির্বাচকের কাজ চালিয়ে যাবেন তিনি। চলতি মাসে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলার কথা পাকিস্তানের। এই সিরিজ পর্যন্ত থাকছেন মিসবাহ। জানুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে হোম সিরিজে পাকিস্তানের নতুন প্রধান নির্বাচক দায়িত্ব নেবেন।

দায়িত্ব ছেড়ে দিয়ে দেওয়া প্রসঙ্গে মিসবাহ জানান, এখন তার সব মনোযোগ কোচিং,  ‘আমি দ্বৈত ভূমিকা খুবই উপভোগ করেছি। কিন্তু ১২ মাসের পর্যালোচনা করে দেখুলাম, পরের ২৪ মাস আমি আমার সকল মেধা, নিবেদন, শ্রম কেবল কোচ হিসেবে দিতে চাই। কারণ কোচিং আমার প্যাশন। আমার মূল লক্ষ্য বড় সাফল্যের জন্য খেলোয়াড় তৈরি করা।’

‘গত বছর আমি যখন নিয়োগপ্রাপ্ত হলাম, আমাকে কোচিংয়ের জন্য প্রথম বেছে নেওয়া হয়। তারপর নির্বাচন কমিটির প্রধান করা হয়। যা আমি গর্বের সঙ্গে গ্রহণ করি। আমি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের কাছে কৃতজ্ঞ তারা আমাকে সমর্থন দিয়ে গেছে।’

দুই ভূমিকায় থাকায় মিসবাহর অবস্থান সাংঘর্ষিক দেখছিলেন পাকিস্তানের অনেক সাবেক ক্রিকেটার। প্রধান নির্বাচক হওয়ার দৌড়ে আছেন মিসবাহর কঠোর সমালোচনা করা সাবেক পেসার শোয়েব আখতার।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclone Remal may make landfall anytime between evening and midnight

Rain with gusty winds hit coastal areas as a peripheral effect of the severe cyclone

1h ago