শীর্ষ খবর

সাতক্ষীরায় একই পরিবারের ৪ জনকে হত্যা

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলায় একই পরিবারের চার জনকে কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বুধবার দিনগত রাতের কোনো এক সময় তাদের হত্যা করা হয়।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলায় একই পরিবারের চার জনকে কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বুধবার দিনগত রাতের কোনো এক সময় তাদের হত্যা করা হয়।

বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারান পাল।

নিহত চার জন হলেন— শাহিনুর রহমান (৪০), তার স্ত্রী সাবিনা খাতুন (৩৫), ছেলে সিয়াম হোসেন (১০) ও মেয়ে তাসলিমা (৮)। তাদের বাড়ি কলারোয়া উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়নের খলিশাগ্রামে।

ওসি হারান পাল জানান, আজ সকাল সাড়ে ৬টার দিকে হেলাতলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন তাদের খবর দেয় যে, হেলাতলা ইউনিয়ন পরিষদের পাশে এক বাড়িতে রাতে ডাকাতি হয়েছে। ডাকাতরা সে সময় একই পরিবারের চার জনকে হত্যা করেছে। এ সংবাদের ভিত্তিতে তিনি আরও কয়েকজন পুলিশ সদস্য নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। গিয়ে দেখেন বাবা-মা ও তাদের দুই সন্তানকে কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। তবে, দুর্বৃত্তরা বাড়ি থেকে অন্যকোনো জিনিসপত্র নেয়নি।

নিহত শাহিনুর রহমানের ছোট ভাই রায়হানুল ইসলাম জানান, বাড়িতে মা ও বড় ভাইয়ের পরিবারের চার জনসহ তারা সাত জন থাকতেন। মা গতকাল আত্মীয়ের বাড়িতে ছিলেন। তিনি (রায়হানুল) ছিলেন পাশের ঘরে। ভোরে পাশের ঘর থেকে তিনি গোঙানির শব্দ শুনতে পান। গিয়ে দেখেন ঘরের দরজা বাইরে থেকে আটকানো। দরজা খুলে তিনি এ মর্মান্তিক দৃশ্য দেখেন। তখনো একটা শিশু বেঁচে ছিল। কিছুক্ষণ পর সেও মারা যায়।

‘আমাদের সঙ্গে জমি নিয়ে পাশের কয়েকজনের বিরোধ ছিল। কিন্তু, কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছেন, তা বুঝতে পারছি না’, বলেন রায়হানুল।

শাহিনুর রহমান একজন মৎস্য ব্যবসায়ী ছিলেন বলে উল্লেখ করে ওসি বলেন, ‘কী কারণে তাদের হত্যা করা হয়েছে, তা এখনো জানা যায়নি। তবে, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ডাকাতি করার জন্য নয়, পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।’

Comments