শীর্ষ খবর

রাঙ্গামাটিতে ধর্ষণের অভিযোগে সাবেক ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ছয় বছর ধরে এক নারীকে নির্যাতন ও ধর্ষণের অভিযোগে সাবেক এক ইউপি সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে রাঙ্গামাটির কোতয়ালী থানা পুলিশ।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ছয় বছর ধরে এক নারীকে নির্যাতন ও ধর্ষণের অভিযোগে সাবেক এক ইউপি সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে রাঙ্গামাটির কোতয়ালী থানা পুলিশ।

কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কবির হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ওসি মো. কবির হোসেন বলেন, ‘আজ শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টায় শহরের একটি হোটেল থেকে অভিযুক্ত আলমগীর এবং ভুক্তভোগী নারীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। থানায় নিয়ে আসার পর ভুক্তভোগী নারী আলমগীরের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দেন। পরবর্তীতে সেই অভিযোগের ভিত্তিতে আলমগীরের বিরুদ্ধে মামলা করা হয় এবং গ্রেপ্তার করে থানায় জেল সেলে রাখা হয়।’

গ্রেপ্তার আলমগীর রাঙ্গামাটি জেলার বরকল উপজেলার একটি ইউনিয়নের সাবেক সদস্য বলে জানায় পুলিশ।

থানায় লিখিত অভিযোগে ভুক্তভোগী বলেন, ‘দীর্ঘ ছয় বছর ধরে আলমগীর মেম্বার তাকে নানাভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে এবং বিয়ের প্রলোভনে আমার সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলে। বিয়ে করবে বলে বলে এভাবে অনেক বছর কেটে যাওয়ার পর সে পরবর্তীতে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। পরে তার সঙ্গে তোলা ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দিবে বলে হুমকিও দেয়। আলমগীর মেম্বার আমাকে রাঙ্গামাটির একটি হোটেলে দেখা করতে বলে এবং ব্যবসা করার জন্য এক লাখ টাকা দাবি করে। ইন্টারনেটে ভিডিও ছড়ালে আমার ক্ষতি হবে ভেবে তার সঙ্গে হোটেলে দেখা করতে আসি। তারপর হোটেলে নিয়ে সে আমাকে ধর্ষণ করে। পরে আমি চুরি করে এ বিষয়টি আমার আত্মীয়স্বজনকে জানালে তারা পুলিশসহ এসে হাতেনাতে আলমগীর মেম্বারকে আটক করে।’

এ বিষয়ে রাঙ্গামাটির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ছুফি উল্লাহ বলেন, ‘সংবাদ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কোতয়ালী থানা থেকে একটি টিম হোটেলে যায় এবং অভিযুক্তকে থানায় নিয়ে আসে। পরবর্তীতে ভুক্তভোগীর লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে সাবেক ইউপি সদস্য আলমগীরের বিরুদ্ধে একটি মামলা করা হয় এবং তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।’

Comments

The Daily Star  | English

St Martin’s Island get food, essentials after 9 days

The tourist ship Baro Awlia left a Teknaf jetty this afternoon ferrying the goods, to ease the ongoing food crisis on the island due to the conflict in Myanmar

5m ago