সেই ফাউলে কোনো শাস্তি হয়নি পিকফোর্ডের

কম করে হলেও ছয় মাস মাঠের বাইরে থাকতে হবে ভার্জিল ভ্যান ডাইককে। চলতি মৌসুমে তাকে মাঠে না দেখা গেলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। এমনকি শঙ্কা রয়েছে ফুটবল ক্যারিয়ারই বাতিল হয়ে যাওয়ার।
ছবি: রয়টার্স

কী এক পাগলাটে ট্যাকলই না করলেন জর্ডান পিকফোর্ড। তাতে কম করে হলেও ছয় মাস মাঠের বাইরে থাকতে হবে ভার্জিল ভ্যান ডাইককে। চলতি মৌসুমে তাকে মাঠে না দেখা গেলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। এমনকি শঙ্কা রয়েছে ফুটবল ক্যারিয়ারই বাতিল হয়ে যাওয়ার। কিন্তু এমন ফাউল করার পরও কোনো শাস্তি পাচ্ছেন এভারটন গোলরক্ষক। এমনটাই জানিয়েছে দ্য ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এফএ)।

ম্যাচের দিনই অবশ্য কোনো শাস্তি পাননি পিকফোর্ড। ভিএআর থাকা সত্ত্বেও সে ফাউলে কোনো ত্রুটি খুঁজে পাননি রেফারি। ফলে ফলে লাল কার্ড তো দূরের কথা, হলুদ কার্ডও দেখেননি। তাই ব্যাপারটা অনুমিতই ছিল কোনো শাস্তি হচ্ছে না পিকফোর্ডের। শেষ পর্যন্ত তাই হয়েছে। কোনো শাস্তি হয়নি ইংল্যান্ডের এ প্রধান গোলরক্ষকের। সেটাকে স্রেফ একটি দুর্ঘটনা জানিয়েছে এফএ।

এফএর শৃঙ্খলাজনিত নিয়ম অনুযায়ী, যদি কোনো ঘটনা রেফারির দৃষ্টি এড়িয়ে যায় বা ভিএআরে না দেখা হয় তাহলেই বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করবে তারা। কিন্তু ডার্বি ম্যাচের রেফারি মাইকেল আলিভারকে ভিএআরের অফিসিয়াল ডেভিড কোতে জানান ঘটনার সময় অফসাইড পজিশনে ছিলেন ভ্যান ডাইক। যে কারণে লাল কার্ড ও পেনাল্টি দুটো থেকেই বেঁচে যায় এভারটন। বেঁচে যান পিকফোর্ডও। শেষপর্যন্ত এফএর সিদ্ধান্তও যায় তার সঙ্গে। 

গত শনিবার ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে মার্সেসাইড ডার্বিতে এভারটনের মাঠে এ দুর্ঘটনাটা ঘটে। ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটেই পিকফোর্ডের ট্যাকলে আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়েন ভ্যান ডাইক। পরদিন এক বিবৃতিতে চোটের ব্যাপারটি নিয়ে লিভারপুল জানায় হাঁটুর লিগামেন্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ভ্যান ডাইকের। ফলে অস্ত্রোপচার করাতে হবে তাকে। এমন ইনজুরি সেরে উঠতে কম করে হলেও ছয় থেকে আট মাস সময় লাগে। সেক্ষেত্রে চলতি মৌসুমে আর নাও দেখা যেতে পারে তাকে।

Comments