বৈবাহিক ধর্ষণের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট

বাংলাদেশ দণ্ডবিধির ৩৭৫ ধারায় ধর্ষণের সংজ্ঞায় বৈবাহিক ধর্ষণের উল্লেখ না থাকায় এই ধারার বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট হয়েছে। চারটি মানবাধিকার সংগঠন— ব্লাস্ট, ব্র্যাক এইচআরএলএস, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন ও নারীপক্ষ রোববার যৌথভাবে এই রিট আবেদন করে।

বাংলাদেশ দণ্ডবিধির ৩৭৫ ধারায় ধর্ষণের সংজ্ঞায় বৈবাহিক ধর্ষণের উল্লেখ না থাকায় এই ধারার বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট হয়েছে। চারটি মানবাধিকার সংগঠন— ব্লাস্ট, ব্র্যাক এইচআরএলএস, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন ও নারীপক্ষ রোববার যৌথভাবে এই রিট আবেদন করে।

বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মহি উদ্দিনের বেঞ্চে এই আবেদন করা হয় বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

আবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশের বর্তমান ধর্ষণ আইনে দণ্ডবিধির ধারাটি লৈঙ্গিক সমতার প্রশ্নে বৈষম্যমূলক। এ ছাড়া, বিবাহিত নারীদের (তেরো বছরের বেশি বয়সী) ক্ষেত্রে এই বিধান সংবিধানের ২৭, ২৮, ৩১, ৩২ ও ৩৫ (৫) অনুচ্ছেদে বর্ণিত মৌলিক অধিকার লঙ্ঘন করে।

আবেদনে দণ্ডবিধির ধর্ষণ সংক্রান্ত ৩৭৫ ধারা এবং ধর্ষণের সাজা সংক্রান্ত ৩৭৬ ধারা এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(১) ধারায় প্রয়োজনীয় সংশোধনী আনার নির্দেশনা চাওয়া হয়।

টাঙ্গাইলে চৌদ্দ বছরের এক কিশোরীর বিয়ের এক মাসের মধ্যে স্বামীর দ্বারা যৌন নিপীড়নে মারা যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে এই রিট আবেদন করা হয়।

Comments

The Daily Star  | English

Science Lab turns into battlefield

100 injured so far as college students lock horn with BCL

29m ago