কুষ্টিয়ায় মাটির তৈরি প্রায় ৫০০ রিং স্লাব ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

কুষ্টিয়ায় পাল সম্প্রদায়ের চারটি পরিবারের প্রায় ৫০০ মাটির তৈরি রিং স্লাব ভেঙে দিয়েছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা। ফলে, উপার্জনের অবলম্বন হারিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে এসব পরিবার।
চারটি পরিবারের মাটির তৈরি রিং স্লাব ভেঙে দিয়েছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা। ছবি: সংগৃহীত

কুষ্টিয়ায় পাল সম্প্রদায়ের চারটি পরিবারের প্রায় ৫০০ মাটির তৈরি রিং স্লাব ভেঙে দিয়েছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা। ফলে, উপার্জনের অবলম্বন হারিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে এসব পরিবার।

গত বুধবার রাতে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার মোকারিমপুর ইউনিয়নের বাগগাড়িপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগীরা হলেন- সন্তোষ কুমার পাল, সঞ্জিত কুমার পাল, প্রসন্ন কুমার পাল ও বাবু লাল কুমার পাল। তারা জীবিকার মাধ্যম হিসেবে মাটির জিনিসপত্র ও মাটির রিং স্লাব তৈরি করে আসছেন পারিবারিক সূত্র ধরে।

ভেড়ামারা থানায় দায়ের করা অভিযোগ থেকে জানা যায়, বুধবার গভীর রাতে কে বা কারা মাটির তৈরি এসব রিংগুলো ভেঙে দেয়।

অভিযোগকারী সঞ্জিত কুমার পাল জানান, বুধবার রাত প্রায় ৮টা পর্যন্ত তারা কাজ করেছিলেন। সকালে উঠে দেখতে পান এগুলো ভাঙা। তারা এগুলো শুকাতে দিয়েছিলেন বলে জানান তিনি। কয়েকদিনের মধ্যে ভাটা করে এগুলো পোড়ানোর প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। ওখানে প্রায় ৫০০ রিং স্লাব ছিলো।

এ ঘটনায় প্রায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেন অভিযোগকারীরা।

স্থানীয়রা জানান, ভুক্তভোগী চারটি পরিবারের আয়ের প্রধান উৎস হলও মাটির জিনিসপত্র তৈরি ও বিক্রয় করা। পাঁচশ মাটির রিং স্লাব ভেঙে ফেলায় এসব পরিবার আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। এই ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে তাদের অনেক সময় লাগবে।

দোষীদের চিহ্নিত করে শাস্তির দাবি জানান স্থানীয়রা।

ভেড়ামারা থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শাহজামাল বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। দোষীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।’

Comments

The Daily Star  | English

Change Maker: A carpenter’s literary paradise

Right in the heart of Jhalakathi lies a library stocked with over 8,000 books of various genres -- history, culture, poetry, and more.

1h ago