কামরাঙ্গীরচরে ২ কিশোর গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরের ঝাউচড় এলাকায় কিশোরদের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে অপু (১৭) নামে এক কিশোর নিহত হয়েছে। গতকাল শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঝাউচড় সেভেনের খেলার মাঠে এই ঘটনা ঘটে। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় অপুকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সাড়ে ৭টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করে।
মিরপুরে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে ২ শ্রমিকের মৃত্যু
প্রতীকী ছবি। স্টার ডিজিটাল গ্রাফিক্স

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরের ঝাউচড় এলাকায় কিশোরদের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে অপু (১৭) নামে এক কিশোর নিহত হয়েছে। গতকাল শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঝাউচড় সেভেনের খেলার মাঠে এই ঘটনা ঘটে। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় অপুকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সাড়ে ৭টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করে।

নিহত অপুর এক বন্ধু জানায়, তাদের বাসা জাউলাহাটি এলাকায়। গতকাল সকালে তাদের এলাকার ছোট ভাই শামীমকে মারধর করে ঝাউচড় এলাকার কয়েকজন কিশোর। সন্ধ্যায় ঘটনা মিমাংসা করতে ঝাউচড় সেভেনের খেলার মাঠে গেলে সেখানে ওই এলাকার সাঞ্জু, ইব্রাহীমসহ ১০/১২ জন লাঠি নিয়ে তাদের ওপড় হামলা করে। এক পর্যায়ে একটা কাঠ দিয়ে অপুর মাথায় আঘাত করে। অপু মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। সে সময় শামীম ও সিহাবকে ছুরিকাঘাত করে।

অপুর মামা হাবিবুর রহমান জানায়, তাদের বাসা কামরাঙ্গীরচরের জাউলাহাটি চৌরাস্তায়। অপু নিউমার্কেটে একটি কসমেটিকসের দোকানের কর্মচারী। মা পারুল বেগম ও দুই বোনের সঙ্গে থাকতো। অনেক দিন আগে অপুর বাবার সঙ্গে মায়ের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। দুই বোন এক ভাইয়ের মধ্যে অপু ছিল দ্বিতীয়। মারামারির ঘটনা শুনে তারা সেভেনের মাঠে যায়। সেখানে অপুকে রক্তাক্ত অবস্থায় পায়। কি নিয়ে বা কারা অপু কে মেরেছে, তা তিনি বলতে পারেননি।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ বক্সের ইনচার্জ (পরিদশর্ক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করে জানান, নিহতের মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে।

কামরাঙ্গীরচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, ক্রিকেট খেলা নিয়ে কিশোরদের মধ্যে একটা মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় এক কিশোর মারা গেছে। বিস্তারিত জানার জন্য ঘটনাস্থলে ও হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

Viqarunnisa restricts teachers from providing tuition

The teachers of Viqarunnisa Noon School and College in the capital cannot provide private coaching or tuition from now on

1h ago