লা লিগার চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নন মেসি, ফোরলানের বিশ্লেষণ

উরুগুয়ের সাবেক স্ট্রাইকারের মতে, মেসিকে ছাড়াই সফলভাবে চলবে লা লিগা।
forlan and messi
ছবি: টুইটার

বার্সেলোনায় থেকে যেতে সম্মত হলেও লিওনেল মেসির ভবিষ্যৎ নিয়ে ধোঁয়াশা কাটেনি। চলতি মৌসুমেই শেষ হয়ে যাচ্ছে কাতালানদের সঙ্গে তার বর্তমান চুক্তির মেয়াদ। এরপর আর্জেন্টাইন তারকা ফরোয়ার্ড ইংলিশ পরাশক্তি ম্যানচেস্টার সিটি নাকি ফরাসি চ্যাম্পিয়ন প্যারিস সেইন্ট জার্মেইতে (পিএসজি) যোগ দেবেন? চলছে অনেক জল্পনা-কল্পনা। তাছাড়া, তিনি স্পেন ছাড়লে লা লিগার জৌলুস কমার শঙ্কাতেও আছেন অনেকে।

তবে এমন জটিল পরিস্থিতি নিয়ে মোটেও উদ্বিগ্ন নন উরুগুয়ের সাবেক স্ট্রাইকার ও ২০১০ বিশ্বকাপে গোল্ডেন বল জেতা দিয়েগো ফোরলান। ‘মার্কা স্পোর্ট উইকেন্ড’কে তার দেওয়া সাক্ষাৎকারের সারকথা হলো, মেসি লা লিগার ইতিহাস কিংবা এর ক্লাবগুলোর চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ নন।

স্প্যানিশ ক্লাব ভিয়ারিয়ালে তিন মৌসুম ও অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদে চার মৌসুম কাটানো ফোরলান স্পষ্ট করে বলেছেন, মেসিকে ছাড়াই সফলভাবে চলবে লা লিগা, ‘আমি বলব না যে, এটা একটা উপহার (বার্সায় মেসির থেকে যাওয়া)। অবশ্যই বিভিন্ন ক্লাবে যেসব অসাধারণ খেলোয়াড় খেলেছে, তাদের কারণে লা লিগা অনেক বিস্তৃত হয়েছে। তবে লা লিগা লা লিগাই! খুব গুরুত্বপূর্ণ হলো ক্লাবগুলো ও ইতিহাস।’

রেকর্ড ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসির চুক্তি নবায়নের বিষয়ে অগ্রগতির কোনো খবর নেই আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে। তাই ন্যু ক্যাম্পের সঙ্গে তার দুই দশকের বন্ধন ছিন্ন হওয়ার গুঞ্জন থামেনি। বার্সা অধিনায়ক ভিনদেশে নতুন ঠিকানায় চলে গেলে লা লিগা উজ্জ্বলতা হারিয়ে আরও ফিকে হয়ে যাবে না? কারণ, সময়ের অন্যতম সেরা দুই তারকা নেইমার ও ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ইতোমধ্যে ছেড়ে গেছেন স্পেন।

৪১ বছর বয়সী ফোরলান অবশ্য জানিয়েছেন, লা লিগার দর্শকপ্রিয়তা বা গুরুত্ব কমে যাওয়ার কোনো সুযোগ দেখছেন না তিনি, ‘এটা খুব ভালো যে, সে (মেসি) থেকে গেছে। লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজ...অসাধারণ খেলোয়াড় হলেও... তারা পাল্টে গেছে। কিন্তু লা লিগা আগের জায়গাতেই থাকবে। এটার ইতিহাস ৯০ বছরের বেশি। অতীতে বড় বড় তারকা এখানে ছিল, ভবিষ্যতেও থাকবে। তবে শেষ পর্যন্ত লা লিগায় যা থাকে, তা হল ক্লাবগুলো। আর এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।’

উল্লেখ্য, গত অগাস্টে চুক্তির একটি বিশেষ ধারা কার্যকর করে বার্সেলোনা ছাড়তে চেয়েছিলেন মেসি। কিন্তু বিনা রিলিজ ক্লজে তাকে যেতে দিতে একদম রাজি ছিলেন না তৎকালীন ক্লাব সভাপতি জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ। সেসময় একটাই উপায় ছিল মেসির- আদালতে যাওয়া। কিন্তু প্রিয় ক্লাবকে কাঠগড়ায় তুলতে চাননি তিনি। দুই সপ্তাহের টানাপোড়েনের পর শেষ পর্যন্ত সিদ্ধান্ত পাল্টে আরও এক মৌসুমের জন্য বার্সায় থাকতে সম্মত হন তিনি।

Comments

The Daily Star  | English

Consumers brace for price shocks

Consumers are bracing for multiple price shocks ahead of Ramadan that usually marks a period of high household spending.

14m ago