‘বন্দুকযুদ্ধে’ হত্যা: প্রদীপের ৪ মামলা সিআইডি-পিআইবিকে তদন্তের নির্দেশ

বন্দুকযুদ্ধের নামে হত্যার অভিযোগে টেকনাফ থানার বহিস্কৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ অন্যদের বিরুদ্ধে চার মামলা তদন্তের আদেশ দিয়েছেন কক্সবাজার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালত-৪ এর বিচারক তামান্না ফারাহ। গতকাল সোমবার এ আদেশ দেওয়া হয়।
প্রদীপ কুমার দাস। ছবি: সংগৃহীত

বন্দুকযুদ্ধের নামে হত্যার অভিযোগে টেকনাফ থানার বহিস্কৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ অন্যদের বিরুদ্ধে চার মামলা তদন্তের আদেশ দিয়েছেন কক্সবাজার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালত-৪ এর বিচারক তামান্না ফারাহ। গতকাল সোমবার এ আদেশ দেওয়া হয়। 

আদালত সূত্রে জানা গেছে, চারটি মামলার মধ্যে দুটি মামলা পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি), একটি মামলা পু্লিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এবং একটি মামলা পুলিশের উখিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছেন আদালত।

টেকনাফের বাহারছড়া এলাকার আবদুল আমিন, একই উপজেলার হোয়ইক্যংয়ের শাহাবুদ্দীন, মিজানুর রহমান ও মাহমুদুর রহমানকে কথিত বন্দুকযুদ্ধের নামে হত্যার অভিযোগে একই আদালতে চারটি আলাদা মামলা করেন নিহতদের স্বজনেরা গত সেপ্টেম্বর মাসে।

মামলাগুলো আদালত প্রাথমিকভাবে আমলে নিয়ে হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে পূর্বে কোন মামলা হয়েছিল কিনা এবং নিহত ব্যক্তিদের ময়নাতদন্ত করা হয়েছিল কিনা তা জানতে চেয়ে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য টেকনাফ থানাকে নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। টেকনাফ থানা থেকে প্রতিবেদন পাওয়ার পর এ চারটি মামলা তদন্তের নির্দেশ এলো।

চারটি মামলার মধ্যে আবদুল আমিন ও মাহমুদুর রহমান হত্যা মামলা দুটি সিআইডিকে, শাহাবুদ্দীন হত্যা মামলাটি পিবিআইকে ও মিজানুর রহমান হত্যা মামলাটি অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবি আবু মুসা মোহাম্মদ বলেন, টেকনাফ থানা পাঁচটি মামলার প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করে। তারমধ্যে চারটি মামলা তদন্ত করার জন্য আদেশ দিয়েছেন আদালত। টেকনাফের হোয়াইক্ষ্যংয়ের মুফিদ আলম হত্যা মামলার আদেশের জন্য পরবর্তী দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মামলার বাদীরা বলেন, আদালতের আদেশে আমরা সন্তুষ্ট। আমরা আশা করি মামলা সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে হত্যাকাণ্ডের ন্যায় বিচার পাব আমরা।

Comments

The Daily Star  | English

Bailey Road fire: 38 of 44 victims identified, 23 bodies handed over to families

At least 38 people, out of 44 who were killed in last night’s Bailey Road fire have been identified

58m ago