শীর্ষ খবর

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য হবেই: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য হবেই বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। ফাইল ফটো

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য হবেই বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

বুধবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার মদনগঞ্জে কর্ণফুলি ডকইয়ার্ডে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি বিজরিত যুদ্ধজাহাজ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

মৌলবাদী শক্তি বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণে বাধার সৃষ্টি করছে এ বিষয়ে মন্ত্রীর প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মোজাম্মেল হক বলেন, ‘অনেকেই অনেক কিছু বলে এগুলো আমলে নেওয়ার মতো না। আমাদের সরকার অত্যন্ত সক্ষম এবং দায়িত্বশীল সরকার। সরকার যেটা সিদ্ধান্ত নেয় সেটা বাস্তবায়ন করার সক্ষমতাও রাখে। রাস্তাঘাটে এখানে সেখানে কারো কোন কথা আমলে নেয়ার প্রয়োজন আছে বলে আমি মনে করি না। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য হবেই।’

মন্ত্রী বলেন, ‘সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে পাকিস্তানি বাহিনী কীভাবে আত্মসমর্পণ করেছে সেটি নির্মিত হবে। সারাদেশেই অসংখ্য ভাস্কর্য আছে। এটা তো নতুন কিছু না। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, গাজীপুরসহ সারাদেশেই অনেক স্থানেই আছে। এসব অর্বাচীনদের কথা আমলে নেওয়ার কোন গুরুত্ব দেখি না।’

যুদ্ধজাহাজ সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি বিজরিত জাহাজটি সংস্কার করে ভালো একটি স্থানে রাখা হবে। এই জাহাজটি আমাদের একটি নির্দশন। জাহাজটি সংরক্ষণের জন্য দুটি জায়গা পছন্দ করা হয়েছে। একটি মাদারীপুরের এসপিটিআই প্রশিক্ষণকেন্দ্র ও অপরটি চাঁদপুরের নদীবন্দরের পাশে। যুদ্ধজাহাজটি এমনভাবে সংরক্ষণ করা হবে যাতে মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে নেভাল কমান্ডোর ইতিহাস সারাবিশ্বের মানুষ জানতে পারে। একটা জাদুঘর করা হবে যা মানুষের কাছে আকর্ষণীয় হিসেবে থাকবে।

তিনি জানান, ৬টি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। যাতে বিআইডব্লিউটিএ, বুয়েট, চিফ আর্কিটেক্ট, নেভাল, জাদুঘরের প্রতিনিধি থাকবে।

একমাসের মধ্যে তারা দু’টি কাজ করবে। একটি হলো তারা স্থান চূড়ান্ত করবে এবং দ্বিতীয়ত এটিকে আর্ন্তজাতিক মানের হিসেবে গড়ে তুলতে কী ধরনের ডিজাইন করা যায় কী থাকতে পারে সে বিষয়ে আইডিয়া দেবে। আমরা বিদেশেও দেখি এ ধরনের বিভিন্ন কিছু সংরক্ষণ করতে। ওই কমিটি আইডিয়া ও বাজেট দেওয়ার পরে সেটি নিয়ে আমরা কাজ করব এবং বাজেট পাশের বিষয়ে পদক্ষেপ নেব, বলেন মন্ত্রী।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান, বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেক, নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সেলিম রেজাসহ অনেকে।

Comments

The Daily Star  | English

Last-minute cattle purchase: Markets abuzz with buyers in Ctg, thin turnout in Dinajpur

The cattle markets in Chattogram city are abuzz with buyers on the last day before Eid-ul-Azha. The markets in Dinajpur, however, are experiencing the opposite scenario with not many buyers even at the last moment

1h ago