২৪ ঘণ্টায় ঢাকায় ডেঙ্গু আক্রান্ত ২০ জন হাসপাতালে ভর্তি

​শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২০ ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ঢাকার হাসপাতালগুলোতে ভর্তি হয়েছেন। এডিশ মশাবাহিত রোগটিতে আক্রান্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৯৯ জন।

শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২০ ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ঢাকার হাসপাতালগুলোতে ভর্তি হয়েছেন। এডিশ মশাবাহিত রোগটিতে আক্রান্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৯৯ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কন্ট্রোল রুম থেকে জানানো হয়, হাসপাতালে ভর্তি ডেঙ্গু রোগীদের মধ্যে ৯৩ জনই ঢাকায় আছেন।

সরকারি প্রতিবেদন অনুযায়ী, চলতি বছর এ পর্যন্ত ৯৮৯ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৮৮৪ জন ইতিমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) ডেঙ্গু সন্দেহে এখন পর্যন্ত ছয়টি মৃত্যুর তথ্য প্রেরিত হয়েছে। আইইডিসিআর দুটি ঘটনার পর্যালোচনা সমাপ্ত করে একটি মৃত্যু ডেঙ্গুজনিত বলে নিশ্চিত করেছে।

গত বছর দেশে ডেঙ্গুর ভয়াবহ প্রাদুর্ভাব দেখা দেয় এবং সরকারি পরিসংখ্যান অনুসারে মশাবাহিত এ রোগে তখন ১৭৯ জন মারা যান।

ডেঙ্গু ছড়ায় এডিস মশার মাধ্যমে। ডেঙ্গু জ্বরের জীবাণুবাহী মশা কোনো ব্যক্তিকে কামড়ালে চার থেকে ছয় দিনের মধ্যে তার উপসর্গ দেখা দেয়। আবার আক্রান্ত ব্যক্তিকে কোনো জীবাণুবিহীন এডিস মশা কামড়ালে সেই মশাটিও বাহকে পরিণত হয়।

ডেঙ্গুতে সাধারণত তীব্র জ্বর এবং সেই সঙ্গে শরীরে প্রচণ্ড ব্যথা হয়। জ্বর ১০৫ ডিগ্রি ফারেনহাইট পর্যন্ত উঠতে পারে। শরীরে বিশেষ করে হাড়, কোমর, পিঠসহ অস্থিসন্ধি ও মাংসপেশিতে তীব্র ব্যথা হয়।

এছাড়া মাথাব্যথা ও চোখের পেছনে ব্যথা হয়। গায়ে র‍্যাশ হতে পারে। এর সঙ্গে বমি বমি ভাব হতে পারে।

Comments

The Daily Star  | English

The never-ending hostility against female students

What was intended to be a sanctuary for empowerment has morphed into a harrowing ordeal for many female students

16h ago