প্রাথমিকেও পরীক্ষা ছাড়াই পরের ক্লাসে

প্রাথমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের পরবর্তী ক্লাসে উর্ত্তীর্ণের জন্য নিজ নিজ স্কুল মূল্যায়ণ করবে এবং কোভিড-১৯ মহামারির কারণে কোনও চূড়ান্ত পরীক্ষা ছাড়াই তাদের পরবর্তী ক্লাসে উর্ত্তীর্ণ করা হবে।
প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

প্রাথমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের পরবর্তী ক্লাসে উর্ত্তীর্ণের জন্য নিজ নিজ স্কুল মূল্যায়ণ করবে এবং কোভিড-১৯ মহামারির কারণে কোনও চূড়ান্ত পরীক্ষা ছাড়াই তাদের পরবর্তী ক্লাসে উর্ত্তীর্ণ করা হবে।

সোমবার প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (ডিপিই) এ বিষয়ে দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে একটি চিঠি দিয়েছে।

ডিপিই মহাপরিচালক আলমগীর মুহাম্মদ মনসুরুল আলমের সই করা চিঠিতে বলা হয়, করোনা পরিস্থিতিতে সরকার টিভি ও রেডিওর মাধ্যমে শিক্ষকের সম্পৃক্ত মোবাইল ফোন ও ডিজিটাল মাধ্যমে শিক্ষার ব্যবস্থা করেছে। এ কার্যক্রমে শিক্ষা কর্মকর্তারাও যুক্ত আছেন।

'এ প্রেক্ষাপটে শিক্ষকগণ কর্তৃক তাদের স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মূল্যায়নের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করা হলো,' চিঠিতে বলা হয়।

এ প্রসঙ্গে ডিপিই পরিচালক (পলিসি অ্যান্ড অপারেশন) খালিদ আহমেদ দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'প্রাথমিকের সব শিক্ষার্থী কোনও পরীক্ষা ছাড়াই পরের ক্লাসে যাবে। শিক্ষকেরা স্কুল বন্ধের আগে নেওয়া ক্লাস এবং টিভি, রেডিওর ক্লাস বিবেচনা করে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করতে পারে।'

কোভিড-১৯ মহামারির কারণে সরকার ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার মেয়াদ বাড়িয়েছে।

এর আগে, ১৭ মার্চ প্রথম স্কুলগুলো বন্ধ করা হয় এবং কয়েক দফায় এই বন্ধের মেয়াদ বাড়ানো হয়।

মহামারির কারণে এর আগে এ বছরের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা, পিএসসি ও সমমান পরীক্ষা এবং জেএসসি ও সমমান পরীক্ষা বাতিল করা হয়।

এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের আগের জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে মূল্যায়ন করা হবে।

এ ছাড়া, ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেণির এক কোটিরও বেশি শিক্ষার্থী কোনও বার্ষিক পরীক্ষা ছাড়াই এ বছর পরবর্তী ক্লাসে উর্ত্তীর্ণ হবে বলে সরকার ঘোষণা দিয়েছে।

Comments