সাততলা বস্তিতে অগ্নিকাণ্ড

আগুনের তাপ লেগে ঘুম ভেঙে যায়: দগ্ধ রাকিব

‘গতকাল রাত ১০টার দিকে ঘরে ফিরে খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েছিলাম। হঠাৎ আগুনের তাপ লেগে ঘুম ভেঙে যায়। তখন তাকিয়ে দেখি চারদিকে দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে’— কথাগুলো বলছিলেন রাজধানীর মহাখালী এলাকার সাততলা বস্তির বাসিন্দা মো. রাকিব ইসলাম (১৫)।
Sattola_Slum_24Nov20.jpg
গতকাল রাতে রাজধানীর মহাখালী এলাকায় সাততলা বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ছবি: আনিসুর রহমান

‘গতকাল রাত ১০টার দিকে ঘরে ফিরে খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েছিলাম। হঠাৎ আগুনের তাপ লেগে ঘুম ভেঙে যায়। তখন তাকিয়ে দেখি চারদিকে দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে’— কথাগুলো বলছিলেন রাজধানীর মহাখালী এলাকার সাততলা বস্তির বাসিন্দা মো. রাকিব ইসলাম (১৫)।

রাকিব কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর থানা এলাকার মাতকলা গ্রামের ইউনুস আলীর ছেলে। তিনি ট্রাকে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। গত রাতে তাকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন আগুনে তার হাত, পা ও বুকসহ শরীরের ২৫ শতাংশ পুড়ে গেছে। জরুরি বিভাগে চিকিৎসা দেওয়া হলেও তিনি এখনো শঙ্কামুক্ত নন।

রাকিব দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, আমি দৌড়ে বাইরে বেরিয়ে আসি। তারপর স্থানীয় বাসিন্দারা আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ডিউটি অফিসার শাহজাদী সুলতানা দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘আনুমানিক রাত ১২টা ৫৫ মিনিটে বস্তিতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। ফায়ার সার্ভিসের ১২টি ইউনিটের চেষ্টায় রাত ২টা ৫৫ মিনিটে আগুন পুরোপুরি নিভিয়ে ফেলা সম্ভব হয়। অগ্নিকাণ্ডে ৯৮টি ঘর ও দোকান পুড়ে গেছে।’

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

6h ago