আর কতবার পরাজিত হলে ট্রাম্প বুঝবেন যে পরাজিত হয়েছেন

সুপ্রিমকোর্টও ট্রাম্পকে রক্ষার দায়িত্ব নিলেন না। সেখানেও পরাজিত হলেন ট্রাম্প। ফলাফল নির্ধারণে গুরুত্বপূর্ণ পেনসিলভেনিয়ার নির্বাচনের স্পষ্ট ব্যবধানে পরাজিত হলেও ট্রাম্প গিয়েছিলেন সুপ্রিমকোর্টে। ধারণা করা হচ্ছিল, এই সুপ্রিমকোর্টের দিকে তাকিয়েই তিনি এত আস্ফালন করছিলেন। কারণ নির্বাচনের আগে সব সমালোচনা উপেক্ষা করে তিন বিচারপতি নিয়োগ দিয়ে ট্রাম্প সুপ্রিমকোর্টে রিপাবলিকান সমর্থক বিচারকদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত করেছিলেন। কিন্তু এই তিন জনসহ নয় জন বিচারপতির কেউই ট্রাম্পের পক্ষে অবস্থান নেননি।
ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফাইল ফটো রয়টার্স

সুপ্রিমকোর্টও ট্রাম্পকে রক্ষার দায়িত্ব নিলেন না। সেখানেও পরাজিত হলেন ট্রাম্প। ফলাফল নির্ধারণে গুরুত্বপূর্ণ পেনসিলভেনিয়ার নির্বাচনের স্পষ্ট ব্যবধানে পরাজিত হলেও ট্রাম্প গিয়েছিলেন সুপ্রিমকোর্টে। ধারণা করা হচ্ছিল, এই সুপ্রিমকোর্টের দিকে তাকিয়েই তিনি এত আস্ফালন করছিলেন। কারণ নির্বাচনের আগে সব সমালোচনা উপেক্ষা করে তিন বিচারপতি নিয়োগ দিয়ে ট্রাম্প সুপ্রিমকোর্টে রিপাবলিকান সমর্থক বিচারকদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত করেছিলেন। কিন্তু এই তিন জনসহ নয় জন বিচারপতির কেউই ট্রাম্পের পক্ষে অবস্থান নেননি।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজয়ের পর ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচন চ্যালেঞ্জ করে আদালতে অর্ধ শতাধিক মামলা করেছেন। আবেদন করেছেন কয়েকটি রাজ্যে ভোট পুনর্গণনার। তার এসব মামলা আদালত খারিজও করে দিয়েছে একের পর এক। এবার খোদ সুপ্রিম কোর্ট ট্রাম্পের আবেদন খারিজ করে দিলো। মেনে নেয়ার আদেশ দিয়েছেন পেনসিলভেনিয়ার ভোটের ফল। 

এখন প্রশ্ন জাগছে, তিনি আর কতো বার জো বাইডেনের কাছে হারতে চান কিংবা তার সহযোগীরা কবে বাস্তবতাকে স্বীকার করে নেবেন। 

সিএনএন জানায়, নির্বাচন 'চুরি' নিয়ে ট্রাম্পের ভিত্তিহীন অভিযোগ যুক্তরাষ্ট্রের আধুনিক ইতিহাসে সবচেয়ে বিভ্রান্তিপূর্ণ প্রয়াস। তবে, কনজারভেটিভ-সংখ্যাগরিষ্ঠ সুপ্রিম কোর্ট ট্রাম্পের পরাজয় ঠেকানোর আশ্বাস দিয়েছিল। এতেই হয়তো নির্বাচনের ফলাফল ঘুরিয়ে দেওয়ার প্রত্যাশা করছিল রিপাবলিকানরা।

ফেডারেল প্রসিকিউটর ও সিএনএন এর সিনিয়র আইনি বিশ্লেষক লরা কোটস বলেন, 'সব কিছু শেষ। প্রেসিডেন্টের আর কোনও উপায় নেই।'

বাইডেনের মুখপাত্র মাইক গুইন বলেন, 'নির্বাচন শেষ। জো বাইডেন জিতেছেন এবং তিনি জানুয়ারিতে প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন।'

তবে ট্রাম্প এখনও নির্বাচনে জয়ী হওয়ার দাবি করছেন। গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যে তিনি বিজয়ী হয়েছেন। ডেমোক্র্যাটরা ভোটারদের সঙ্গে প্রতারণা করেছে বলে তার দাবি। এসব বলার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই সুপ্রিম কোর্ট তার রায় জানালেন।

জো বাইডেনের অধীনেই পরবর্তী মার্কিন প্রশাসন গঠন হবে। বাইডেন ৩০৬টি ইলেকটোরাল ভোট পেয়েছেন, আর ট্রাম্প পেয়েছেন ২৩২টি। ট্রাম্পের প্রচারণা শিবির আদালতে নির্বাচন জালিয়াতি বা অনিয়মের কোনও প্রমাণ হাজির করতে ব্যর্থ হয়েছে এবং মামলাগুলো একাধিক রাজ্যের বিচারকরা খারিজ করে দিয়েছেন।

এরপরও, মঙ্গলবার মিচ ম্যাককনেল ও কেভিন ম্যাকার্থিসহ কংগ্রেসের সিনিয়র রিপাবলিকান সদস্যরা বাইডেনের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার প্রস্তাবের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছেন। বেশ কয়েকজন রিপাবলিকান বাইডেনকে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে মেনে নিতে চাইছেন না।

ট্রাম্পের আইন উপদেষ্টা রুডি গিউলিয়ানি ও জেনা এলিস ২০ জানুয়ারি নতুন প্রেসিডেন্টের প্রথম দিন পর্যন্ত লড়াইয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। 

Comments

The Daily Star  | English

44 lives lost to Bailey Road blaze

33 died at DMCH, 10 at the burn institute, and one at Central Police Hospital

5h ago