মামলা-মোকদ্দমা দিয়ে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়: ফখরুল

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যবিরোধী ষড়যন্ত্র করার অভিযোগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ অন্যান্যদের বিরুদ্ধে মামলা প্রসঙ্গে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেছেন, ‘বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের সব সময় মামলার মধ্যে রাখা আওয়ামী লীগের পরিকল্পনার অংশ। এভাবে মামলা মোকদ্দমা দিয়ে তারা ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়।’
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। স্টার ফাইল ছবি

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যবিরোধী ষড়যন্ত্র করার অভিযোগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ অন্যান্যদের বিরুদ্ধে মামলা প্রসঙ্গে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেছেন, ‘বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের সব সময় মামলার মধ্যে রাখা আওয়ামী লীগের পরিকল্পনার অংশ। এভাবে মামলা মোকদ্দমা দিয়ে তারা ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়।’

আজ বুধবার বিকেলে ঠাকুরগাঁওয়ে তিন দিনের রাজনৈতিক সফর শেষে ঢাকার উদ্দেশে যাওয়ার আগে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ে তিনি এসব বলেন।

ফখরুল বলেন, এটা সেই গ্রাম্য মোড়লের মতো, যার কাজই হচ্ছে মামলা দিয়ে জনগণকে অস্থির করে রাখা। এসব মিথ্যা মামলাগুলো প্রমাণ করে তারা কীভাবে বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করতে পরিকল্পনা করছে।

তিনি বলেন, যখন তারা (আওয়ামী লীগ) জনগণের সম্মুখীন হতে পারে না, জনগণকে ভয় পায়, অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন করতে ভয় পায়, তখন মামলা-মোকদ্দমা দিয়ে বিরোধী দলকে চাপে রাখার এটা একটা অপকৌশল নেয়।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আওয়ামী লীগ যেভাবে অগণতান্ত্রিক উপায়ে দেশ শাসন করছে, তাতে দেশে আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের মতো উগ্র জঙ্গিবাদ সৃষ্টির আশঙ্কা আছে।’

‘দেশে অনিশ্চয়তা অস্থিতিশীলতা আওয়ামী লীগের জন্যই সৃষ্টি হয়েছে। গণতন্ত্রের কথা বলে তারা একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত করেছিল।’

ভাস্কর্য বিরোধী ষড়যন্ত্রের অভিযোগে মামলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী বরাবর এটা করে আসছেন। তার দায়িত্ব হচ্ছে আমাদের বিরুদ্ধে এই ধরণের মানহানির মামলা করা।’

বর্তমান প্রেক্ষাপটে মৌলবাদীদের উত্থান প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘গণতন্ত্রহীনতা শুধুমাত্র উগ্রবাদ, মৌলবাদ, জঙ্গিবাদকে প্রচার করতে চায়, তাদেরকেই সাহায্য করে। গণতন্ত্রকে যখনই দাবিয়ে রাখা হয়, বিরোধী দলকে যখন কাজ করতে দেওয়া হয় না, তখনই এই উগ্রবাদের উত্থান ঘটে। সেটাই আওয়ামী লীগ করছে জেনেশুনে।’

‘আওয়ামী লীগের কারণে দেশে উগ্রবাদের উত্থান হচ্ছে,’ বলেন তিনি।

Comments

The Daily Star  | English

Hefty power bill to weigh on consumers

The government has decided to increase electricity prices by Tk 0.34 and Tk 0.70 a unit from March, which according to experts will have a domino effect on the prices of essentials ahead of Ramadan.

3h ago