গ্লোবাল নলেজ ইনডেক্সে বাংলাদেশের অবস্থান ভুটান, নেপাল, পাকিস্তানেরও নিচে

গ্লোবাল নলেজ ইনডেক্স ২০২০ এ ১৩৮টি দেশের মধ্যে ১১২তম অবস্থানে বাংলাদেশ। অন্যদিকে, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান সবচেয়ে নিচে।

গ্লোবাল নলেজ ইনডেক্স ২০২০ এ ১৩৮টি দেশের মধ্যে ১১২তম অবস্থানে বাংলাদেশ। অন্যদিকে, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান সবচেয়ে নিচে।  

গত বুধবার দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত এক সম্মেলনে জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি (ইউএনডিপি) ও মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম নলেজ ফাউন্ডেশন যৌথভাবে ২০২০ সালের গ্লোবাল নলেজ ইনডেক্স (জিকেআই) প্রকাশ করে।

এ বছর গ্লোবাল নলেজ ইনডেক্সের তালিকায় ৭৩ দশমিক ৬ স্কোর নিয়ে শীর্ষে সুইজারল্যান্ড। এ নিয়ে টানা চতুর্থবারের মতো দেশটি শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে। তালিকায় ৭১ দশমিক ১ স্কোর নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র দ্বিতীয় ও ৭০ দশমিক ৮ স্কোর নিয়ে ফিনল্যান্ড তৃতীয় অবস্থানে।

অন্যদিকে, ৪৪ দশমিক ৪ স্কোর নিয়ে বিশ্বে ৭৫তম ও দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে এগিয়ে আছে ভারত। এরপরই ৪২ দশমিক ১ স্কোর নিয়ে বিশ্বে ৮৭তম ও দক্ষিণ এশিয়ায় দ্বিতীয় অবস্থানে আছে শ্রীলঙ্কা।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ৪০ দশমিক ৯ স্কোর নিয়ে ভুটান তৃতীয়, ৩৬ দশমিক ২ স্কোর নিয়ে নেপাল চতুর্থ ও ৩৫ দশমিক ৯ স্কোর নিয়ে পঞ্চম অবস্থানে আছে পাকিস্তান। আর সূচকে ৩৫ দশমিক ৯ স্কোর নিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার সবার নিচের অবস্থানে বাংলাদেশ।

সূচকটি তৈরিতে শিক্ষা, প্রযুক্তি, উন্নয়ন ও উদ্ভাবনসহ সাতটি বিষয়কে বিবেচনা করা হয়েছে। এটি সাতটি সেক্টরের অধীনে ১৩৩টি চলকের (ভেরিয়েবল) উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়ে। এগুলো হলো- প্রাক-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা, প্রযুক্তিগত ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা এবং প্রশিক্ষণ, উচ্চশিক্ষা, গবেষণা, উন্নয়ন ও উদ্ভাবন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, অর্থনীতি এবং সাধারণ সহায়ক পরিবেশ।

বাংলাদেশ প্রাক-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা সেক্টরে ৪৩ দশমিক ৯ স্কোর পেয়েছে। প্রযুক্তিগত ও বৃত্তিমূলক শিক্ষায় বাংলাদেশের স্কোর ৪৯।

অন্যদিকে, উচ্চশিক্ষা সেক্টরে বাংলাদেশের অবস্থান সবচেয়ে নাজুক, এই সেক্টরে বাংলাদেশের স্কোর ২৪ দশমিক ১।

এছাড়াও গবেষণা, উন্নয়ন ও উদ্ভাবন খাতে বাংলাদেশের স্কোর ১৬ দশমিক ৪, আইসিটি সেক্টরে স্কোর ৪৩ দশমিক ১, অর্থনীতি সেক্টরে বাংলাদেশের স্কোর ৩১ দশমিক ৫ এবং সাধারণ সহায়ক পরিবেশ ৪৬ দশমিক ৪।

গ্লোবাল নলেজ ইনডেক্স ২০২০ এর তালিকায় শীর্ষ ১০টি দেশ হলো- সুইজারল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, ফিনল্যান্ড, সুইডেন, নেদারল্যান্ডস, লুক্সেমবার্গ, সিঙ্গাপুর, ডেনমার্ক, যুক্তরাজ্য এবং হংকং ও চীন (যৌথ)।

Comments

The Daily Star  | English

Elevated expressway to open to public only after curfew is lifted

The Dhaka Elevated Expressway will remain closed to public until the government lifts the curfew fully, the operating company said today

16m ago