সবার জন্য উন্মুক্ত হলো বরগুনার নয়নাভিরাম ‘মোহনা’

সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত হয়েছে বরগুনা জেলার বালিয়াতলী ইউনিয়নের নয়নাভিরাম ‘মোহনা’ পর্যটন কেন্দ্র। শতাধিক রঙিন বেলুন ও বাহারি ঘুড়ি উড়িয়ে গত ১২ ডিসেম্বর নান্দনিক এই পর্যটন কেন্দ্রটির উদ্বোধন করেন বরগুনার জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ। যার মাধ্যমেই পর্যটন কেন্দ্রটি সবার জন্য উন্মুক্ত হয়েছে। জেলা প্রশাসকই এর নাম ‘মোহনা’ পর্যটন কেন্দ্র রেখেছেন।
মোহনা পর্যটন কেন্দ্র। ছবি: স্টার

সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত হয়েছে বরগুনা জেলার বালিয়াতলী ইউনিয়নের নয়নাভিরাম ‘মোহনা’ পর্যটন কেন্দ্র। শতাধিক রঙিন বেলুন ও বাহারি ঘুড়ি উড়িয়ে গত ১২ ডিসেম্বর নান্দনিক এই পর্যটন কেন্দ্রটির উদ্বোধন করেন বরগুনার জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ। যার মাধ্যমেই পর্যটন কেন্দ্রটি সবার জন্য উন্মুক্ত হয়েছে। জেলা প্রশাসকই এর নাম ‘মোহনা’ পর্যটন কেন্দ্র রেখেছেন।

পায়রা নদীর তীর বিস্তৃত বাহারি রঙে রঙিন সিমেন্টের ব্লকগুলো পর্যটকদের মনকে রাঙিয়ে তুলে। স্নিগ্ধ বিকেলে গোধূলির রক্তিম সৌন্দর্যের সন্ধানে প্রতিদিন পর্যটকরা মোহনা পর্যটন কেন্দ্র ভ্রমণ করে থাকেন। বিকেলে সেখানে নানা বয়সের সৌন্দর্য পিপাসুদের ভিড় জমে। করোনা মহামারির বিষয়টি বিবেচনা করে সেখানে স্বাস্থ্যবিধি মানার ওপরও জোর দেওয়া হয়।

জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহর পরিকল্পনা ও নির্দেশনায় মোহনা পর্যটন কেন্দ্রটির অগ্রগতি সাধনে সহায়তা করেন কয়েকজন শিল্প-উদ্যমী তরুণ। যার মধ্যে মো. আরিফ হোসেন ও আরিফুর রহমান অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন।

দেশের যেকোনো স্থান থেকে বিশেষ করে সড়ক পথে ঢাকার কল্যাণপুর, গাবতলী বা সায়েদাবাদ বাসস্ট্যান্ড থেকে বরগুনা শহরে আসা যায় যায় এবং সেখান থেকে সিএনজিচালিত অটোরিকশা বা মোটরসাইকেলে করে মোহনা পর্যটন কেন্দ্রে যাওয়া যায় সহজেই। ঢাকার সদরঘাট থেকে লঞ্চেও বরগুনা আসা যায় স্বল্প খরচে।

আকাশ পথেও রয়েছে যাতায়াতের সুযোগ। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনাল থেকে বরিশাল বিমানবন্দর। বরিশাল থেকে বাসে করে বরগুনা বাস টার্মিনাল। তারপর অটোরিকশা বা মোটরসাইকেলে করে মোহনা পর্যটন কেন্দ্রে যাওয়া যায়।

Comments

The Daily Star  | English

Cattle prices still high

With only a day left before Eid-ul-Azha, the number of buyers was still low, despite a large supply of bulls

1h ago