ফেডারেশন কাপ

বিদেশিদের নৈপুণ্যে বসুন্ধরার দুর্দান্ত শুরু

একপেশে ম্যাচে অস্কার ব্রুজোনের শিষ্যদের কাছে পাত্তা পায়নি পুরান ঢাকার দলটি।
Bashundhara Kings
ছবি: বাফুফে

দানিয়েল কলিনদ্রেস কিংবা হার্নান বার্কোস নেই। তাদের শূন্যতা পূরণে ব্রাজিলের রবসন দা সিলভা রবিনহো আর আর্জেন্টাইন বংশোদ্ভূত চিলিয়ান রাউল বেসেরাকে দলভুক্ত করেছে বসুন্ধরা কিংস। ক্লাবটির হয়ে প্রতিযোগিতামূলক অভিষেকে দুই ফরোয়ার্ডই খুঁজে নিলেন জালের ঠিকানা। বিপরীতে, আক্রমণ সামলাতে হিমশিম খাওয়া রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটি করল অমার্জনীয় সব ভুল। ফলে দাপুটে জয়ে ফেডারেশন কাপে শুভ সূচনা করল বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

মঙ্গলবার প্রতিযোগিতার ৩২তম আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে রহমতগঞ্জকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে বসুন্ধরা। ‘সি’ গ্রুপের একপেশে ম্যাচে অস্কার ব্রুজোনের শিষ্যদের কাছে পাত্তা পায়নি পুরান ঢাকার দলটি।

federation cup
ছবি: বাফুফে

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে গত মার্চের মাঝামাঝি সময়ে স্থগিত হয়ে যায় বাংলাদেশের ঘরোয়া ফুটবল। এরপর গোটা ২০১৯-২০ মৌসুমই বাতিল করে দেয় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। লম্বা বিরতি শেষে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এর মধ্যেই মাঠে নামা হয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ফুটবলারদের। স্কুল ফুটবল ও নারীদের ফুটবলও মাঠে গড়িয়েছে। আর বসুন্ধরা-রহমতগঞ্জের ম্যাচ দিয়ে ফিরল পুরুষদের ঘরোয়া ফুটবলও।

গত আসরের দুই ফাইনালিস্টের লড়াইয়ে শুরু থেকে ছিল বসুন্ধরার আধিপত্য। প্রথম মিনিটেই তারা পেয়ে যেতে পারত গোল। কিন্তু রহমতগঞ্জের গোলরক্ষক রাসেল মাহমুদ লিটন গ্লাভসে বল জমাতে ব্যর্থ হওয়ার পর বেসেরার দুর্বল ভলি খুঁজে পায়নি জাল।

একের পর এক আক্রমণে প্রতিপক্ষকে ব্যতিব্যস্ত রাখা তারকাসমৃদ্ধ বসুন্ধরার অপেক্ষার অবসান হয় ৪৩তম মিনিটে। অভিষিক্ত আরেক ব্রাজিলিয়ান জোনাথন দা সিলভেইরা ফার্নান্দেসের ফ্রি কিকে অসাধারণ হেডে লক্ষ্যভেদ করেন বেসেরা।

Bashundhara Kings
ছবি: বাফুফে

বিরতির পর অষ্টম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন রবিনহো। রহমতগঞ্জের ডিফেন্ডার মাহমুদুল হাসান কিরণ পাস দিতে গিয়ে বল তুলে দেন প্রতিপক্ষের পায়ে। অথচ কোনো চাপের মাঝে ছিলেন না তিনি। ডি-বক্সের বাইরে থেকে দর্শনীয় চিপে গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে জাল খুঁজে নেন রবিনহো।

ম্যাচের ৬৪তম মিনিটে আত্মঘাতী গোলে ম্যাচ থেকে পুরোপুরি ছিটকে যায় রহমতগঞ্জ। বাম প্রান্ত থেকে রবিনহোর ক্রসে ইমন বাবুর শট গোলরক্ষক লিটন রুখে দিলেও পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে পারেননি। এরপর আলগা বলে হেড করে নিজেদের জালেই জড়িয়ে দেন মিশরের ডিফেন্ডার আলালদিন নাসের।

Comments

The Daily Star  | English
Awami League's peace rally

Relatives in UZ Polls: AL chief’s directive for MPs largely unheeded

Ministers’ and Awami League lawmakers’ desire to tighten their grip on grassroots seems to be prevailing over the AL president’s directive to have their family members and relatives withdrawn from the upazila polls. 

52m ago