দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেলে উপভোগ করুন: অশ্বিন

রবি শাস্ত্রীর শিষ্যরা প্রতিকূলতার কাছে নতি স্বীকার করেনি। দোর্দণ্ড প্রতাপে ঘুরে দাঁড়িয়ে ব্যাটে-বলে নাস্তানাবুদ করে ছেড়েছে অস্ট্রেলিয়াকে।
india wall
ছবি: টুইটার

দেয়ালে পিঠ ঠেকে গিয়েছিল ভারতের। নয়তো আর কী! নিজেদের টেস্ট ইতিহাসের সবচেয়ে কম রানে গুটিয়ে যাওয়ার অস্বস্তির সঙ্গে যোগ হয়েছিল তারকা খেলোয়াড়দের দুজনের অনুপস্থিতি। অর্থাৎ আত্মবিশ্বাসের তলানিতে পৌঁছে যাওয়া দলটি শক্তির বিচারেও পিছিয়ে পড়েছিল। কিন্তু রবিচন্দ্রন অশ্বিনসহ রবি শাস্ত্রীর শিষ্যরা প্রতিকূলতার কাছে নতি স্বীকার করেনি। দোর্দণ্ড প্রতাপে ঘুরে দাঁড়িয়ে ব্যাট-বলের লড়াইয়ে তারা নাস্তানাবুদ করে ছেড়েছে অস্ট্রেলিয়াকে।

অ্যাডিলেড টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ৩৬ রানে অলআউট হওয়ার দশ দিনের ব্যবধানে মেলবোর্নে বিজয়ীর হাসি হেসেছে ভারত। ৮ উইকেটে হারের বদলা তারা নিয়েছে ওই ৮ উইকেটেই জিতে! নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও পেসার মোহাম্মদ শামিকে ছাড়াই অসাধারণ জয়ের পথে দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন আজিঙ্কা রাহানে। সেরার পুরস্কার পাওয়া ভারতের ভারপ্রাপ্ত দলনেতা ম্যাচে যাদের কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ সহায়তা পেয়েছেন, তাদের মধ্যে অন্যতম অশ্বিন। দুই ইনিংস মিলিয়ে এই অফ স্পিনারের শিকার ৫ উইকেট।

ঘুরে দাঁড়িয়ে চার ম্যাচের সিরিজে সমতায় ফেরার পর মঙ্গলবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে একটি ছবি শেয়ার করেছেন অশ্বিন। সেখানে তিনিসহ ভারতের বেশ কয়েক জন খেলোয়াড়কে মেলবোর্ন স্টেডিয়ামের অনার্স বোর্ডের নিচের দেয়ালে ঠেস দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন নিজের উপলব্ধির কথা, ‘যখন দেয়ালে পিঠ ঠেকে যায়, হেলান দিয়ে দাঁড়ান আর দেয়ালকে অবলম্বন হিসেবে পাওয়াটা উপভোগ করুন!! পুরো দলকে অভিবাদন জানাচ্ছি। কী দারুণ একটা জয় পেয়েছি! বিশেষভাবে উল্লেখ করছি মোহাম্মদ সিরাজ, শুবমান গিল, আজিঙ্কা রাহানে, চেতেশ্বর পূজারা, জসপ্রিত বুমরাহ, উমেশ যাদব ও রবীন্দ্র জাদেজার নাম।’

অস্ট্রেলিয়া-ভারতের বক্সিং ডে টেস্টের ফয়সালা হয়েছে চতুর্থ দিনের দ্বিতীয় সেশনেই। বোলারদের নৈপুণ্যে দ্বিতীয় ইনিংসে স্বাগতিকদের ২০০ রানে গুটিয়ে দিয়ে সফরকারীরা পেয়েছিল ৭০ রানের মামুলি লক্ষ্য। মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে তা ছুঁয়ে ফেলে দলটি।

এই টেস্টে একটি বিশ্বরেকর্ডও গড়েছেন ৩৪ বছর বয়সী অশ্বিন। টেস্ট ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি বাঁহাতি ব্যাটসম্যানকে আউট করার কীর্তি এখন তার। মেলবোর্নে তার পঞ্চম ও শেষ শিকার ছিলেন জস হ্যাজেলউড। তাকে বিদায় করে সাদা পোশাকে ১৯২ নম্বর বাঁহাতি ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে পাঠানোর কৃতিত্ব দেখান তামিলনাড়ুর এই ক্রিকেটার।

রেকর্ড নিজের করে নেওয়ার পথে অশ্বিন পেরিয়ে গেছেন টেস্টে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি মুত্তিয়া মুরালিধরনকে। শ্রীলঙ্কার সাবেক স্পিন জাদুকরের ৮০০ উইকেটের মধ্যে বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের সংখ্যা ১৯১। মাত্রই শেষ হওয়ার টেস্টের প্রথম ইনিংসে ম্যাথু ওয়েডকে নিজের ঝুলিতে পুরে কিংবদন্তি মুরালির পাশে বসেন অশ্বিন। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে হ্যাজেলউডকে বোল্ড করে তিনি এককভাবে উঠে গেছেন চূড়ায়। ৭৩ টেস্টে অশ্বিনের উইকেট সংখ্যা ৩৭৫। অর্থাৎ তার টেস্ট ক্যরিয়ারের ৫১.২০ শতাংশ উইকেটই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানদের।

Comments

The Daily Star  | English

‘Will implement Teesta project with help from India’

Prime Minister Sheikh Hasina has said her government will implement the Teesta project with assistance from India and it has got assurances from the neighbouring country in this regard.

3h ago