আদিবাসীদের সম্মানে অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় সংগীতে পরিবর্তন

অস্ট্রেলিয়া তাদের আদিবাসী জনগোষ্ঠীকে বিশ্বের প্রাচীনতম চলমান সভ্যতা হিসেবে স্বীকৃতি দিতে জাতীয় সংগীতে পরিবর্তন এনেছে। সংশোধিত জাতীয় সংগীতে অস্ট্রেলিয়াকে ‘ইয়াং অ্যান্ড ফ্রি’ বলা হবে না।
ছবি: রয়টার্স

অস্ট্রেলিয়া তাদের আদিবাসী জনগোষ্ঠীকে বিশ্বের প্রাচীনতম চলমান সভ্যতা হিসেবে স্বীকৃতি দিতে জাতীয় সংগীতে পরিবর্তন এনেছে। সংশোধিত জাতীয় সংগীতে অস্ট্রেলিয়াকে ‘ইয়াং অ্যান্ড ফ্রি’ বলা হবে না। 

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের ঘোষণার মধ্য দিয়ে আজ নতুন বছরের প্রথম দিন থেকে পরিবর্তিত জাতীয় সংগীত ‘ফর উই আর ওয়ান অ্যান্ড ফ্রি’ কার্যকর হয়েছে।

আজ শুক্রবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স বিষয়টি জানিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন ক্যানবেরায় সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা প্রাচীন প্রথম জাতিগোষ্ঠীর একটি দেশে বাস করি। আমরা তিনশ’র বেশি জাতীয় পূর্বপুরুষ এবং ভাষা গোষ্ঠীর গল্প একত্রিত করেছি।’

‘আমাদের জাতীয় সংগীতে এটা প্রতিফলিত করা উচিত। আমরা যে পরিবর্তন করেছি এবং আজ যা ঘোষণা করেছি, সেই লক্ষ্য অর্জনে আমি আশাবাদী।’

অস্ট্রেলিয়া কয়েক দশক ধরে আদিবাসীদের সঙ্গে সমঝোতার সংগ্রাম করেছ, যারা ব্রিটিশ ঔপনিবেশিকদের প্রায় ৫০ হাজার বছর আগে মহাদেশে এসেছিল।

প্রতি বছর অস্ট্রেলিয়ানদের ২৬ জানুয়ারি জাতীয় ছুটি থাকে। ১৭৮৮ সালে সিডনি হারবারে ‘প্রথম নৌবহর’র যাত্রা উপলক্ষে এই ছুটি। তবে, কিছু আদিবাসী অস্ট্রেলিয়া দিবসকে ‘আগ্রাসন দিবস’ হিসেবে উল্লেখ করে থাকে।

প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন দেশটির অনেক আইন প্রণেতা। তাদের আদিবাসী অস্ট্রেলিয়ার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কেন ওয়ায়াট এবং ডানপন্থী ওয়ান নেশন পার্টির নেতা পলিন হ্যানসন আছেন।

Comments

The Daily Star  | English

‘Will implement Teesta project with help from India’

Prime Minister Sheikh Hasina has said her government will implement the Teesta project with assistance from India and it has got assurances from the neighbouring country in this regard.

5h ago