এক রাত ৮০ হাজার ডলার!

করোনা মহামারির মধ্যে ছুটি কাটাতে অনেকেই বেছে নিচ্ছেন মালদ্বীপের প্রাইভেট দ্বীপগুলো। ভারত মহাসাগরে দ্বীপরাষ্ট্র মালদ্বীপে ছোট-বড় মিলিয়ে প্রায় ১ হাজার ২০০টি দ্বীপ আছে।
Maldives private island
মালদ্বীপের ওয়াল্ডর্ফ অ্যাস্টোরিয়া ইথাফুশি রিসোর্ট। ছবি: সংগৃহীত

করোনা মহামারির মধ্যে ছুটি কাটাতে অনেকেই বেছে নিচ্ছেন মালদ্বীপের প্রাইভেট দ্বীপগুলো। ভারত মহাসাগরে দ্বীপরাষ্ট্র মালদ্বীপে ছোট-বড় মিলিয়ে প্রায় ১ হাজার ২০০টি দ্বীপ আছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, পর্যটকদের জন্য মালদ্বীপের রিসোর্টগুলো প্রাইভেট দ্বীপের ব্যবস্থা করেছে।

এই সপ্তাহে ‘ওয়াল্ডর্ফ অ্যাস্টোরিয়া মালদ্বীপ ইথাফুশি রিসোর্ট’ আনুষ্ঠানিকভাবে ‘ইথাফুশি— দ্য প্রাইভেট আইল্যান্ড’ নামে একটি প্রাইভেট দ্বীপ উদ্বোধন করেছে।

প্রায় ৩২ হাজার বর্গমিটার জুড়ে বিস্তৃত এটিই মালদ্বীপের বৃহত্তম ব্যক্তিগত দ্বীপ। দ্বীপটিতে এক রাত থাকতে খরচ হবে ৮০ হাজার ডলার।

Maldives private island
ছবি: সংগৃহীত

সংবাদ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দ্বীপের তিনটি ভবনে ২৪ জন অতিথি থাকতে পারবেন। দ্বীপের মূল আকর্ষণ পানির ওপরে নির্মিত দুই বেডরুমের একটি বাগানবাড়ি। সেখানে ইনডোর ও আউটডোর ঝর্ণা রয়েছে। একটি লিভিং রুমের পাশাপাশি রয়েছে ইনফিনিটি পুল ও জাকুজি।

সৈকতের কাছে অন্য একটি তিন বেডরুমের বাগানবাড়িতে দুটি সুইমিংপুল এবং চার বেডরুমের অন্য সব বাড়িতে দুটি কিং বেডরুম, দুটি কুইন বেডরুম, জাকুজি ও কমন লিভিং রুম রয়েছে। এর সবগুলো থেকেই সরাসরি সৈকতে নামা যাবে।

Maldives private island
ছবি: সংগৃহীত

প্রতিবেদন মতে, বিদেশি পর্যটকরা রাজধানী মালে’র আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সহজেই সেখানে যেতে পারবেন। রিসোর্টের ছয়টি নৌযানে ৪০ মিনিটের মধ্যেই দ্বীপটিতে পৌঁছানো যাবে। এছাড়াও, উড়োজাহাজে ১৫ মিনিটের মধ্যে অতিথিরা সেখানে যেতে পারবেন।

খাওয়া-দাওয়ার ক্ষেত্রে প্রাইভেট দ্বীপগুলোর নিজস্ব শেফ আছে। অতিথিদের পছন্দ অনুযায়ী শেফরা খাবার পরিবেশন করবেন। তবে, কেউ চাইলে ১০ মিনিটের নৌকা ভ্রমণে মূল ওয়াল্ডার্ফ এস্তোরিয়া রিসোর্টে গিয়েও খেয়ে আসতে পারবেন।

প্রাইভেট দ্বীপটিতে আরও রয়েছে ওয়াটার-স্পোর্টস, ডাইভিং ও সমুদ্র ভ্রমণের ব্যবস্থা। আছে স্পা, যোগ ব্যায়াম ও ব্যায়ামাগার। শিশুদের জন্য আলাদা পুল ও গেমিং এরিয়াও রয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

Climate change to wreck global income by 2050: study

Researchers in Germany estimate that climate change will shrink global GDP at least 20% by 2050. Scientists said that figure would worsen if countries fail to meet emissions-cutting targets

2h ago