খেলা

ফিরেই নতুন মাইলফলকে সাকিব

দেশের মাটিতে শততম ওয়ানডে খেলতে নামা সাকিব আল হাসান স্পর্শ করলেন আরেকটি দারুণ মাইলফলক।
shakib al hasan 100 and 150
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

দেশের মাটিতে শততম ওয়ানডে খেলতে নামা সাকিব আল হাসান স্পর্শ করলেন আরেকটি দারুণ মাইলফলক। বাংলাদেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপন দেখালেন ঘরের মাঠে ১৫০ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব।

বুধবার বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজের তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে দিয়ে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আন্তর্জাতিক মঞ্চে ফিরেছেন সাকিব। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে নেমেই বোলিং জাদু দেখাতে শুরু করেছেন তিনি। তার বাঁ হাতের ভেলকির কোনো জবাবই যেন জানা নেই ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যানদের।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা উইন্ডিজকে প্রথমে ধাক্কা দেন বাঁহাতি পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। তার নৈপুণ্যে দলীয় ২৪ রানের মধ্যে ২ উইকেট হারিয়ে ফেলে দলটি। এরপর মঞ্চে সদর্পে আবির্ভূত হন সাকিব। দেশের মাটিতে শততম ওয়ানডে খেলার উপলক্ষে শুরুতেই কাড়েন ক্রিকেট ভক্তদের নজর।

পাওয়ার প্লে শেষ হওয়ার পর বাংলাদেশের নতুন অধিনায়ক তামিম ইকবাল বল তুলে দেন সাকিবের হাতে। প্রথম ওভারেই উইকেট নেওয়ার সম্ভাবনা জাগিয়েছিলেন টাইগারদের আস্থার প্রতীক। অভিষিক্ত আন্দ্রে ম্যাকার্থির ব্যাট ছুঁয়ে বল যায় স্লিপে। কিন্তু সেখানে থাকা মেহেদী হাসান মিরাজের নাগালের বাইরে ছিল তা।

নিজের পরের ওভারেই দলকে উল্লাসে মাতান সাকিব। সুইপ করতে গিয়ে বোল্ড হয়ে যান ম্যাকার্থি। ফলে দেশের মাটিতে ১৫০ উইকেট নেওয়ার মাইলফলক ছোঁয়া হয়ে যায় সাকিবের। ম্যাকার্থির ব্যাট থেকে আসে ৩৪ বলে ১২ রান।

এরপর উইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন মোহাম্মদকে বিদায় করেন সাকিব। দারুণ স্টাম্পিং করে তাকে সাহায্য করেন উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিম। প্রায় আড়াই বছর পর ওয়ানডে খেলতে নামা মোহাম্মদ করেন ৩৬ বলে ১৭ রান। ফলে দলীয় ৫৬ রানে পতন হয় উইন্ডিজের চতুর্থ উইকেটের।

দলটির খাতায় আর কোনো রান যোগ হওয়ার আগেই সাজঘরে ফেরেন এনক্রুমা বোনার। সাকিবের তৃতীয় ও বাংলাদেশের পঞ্চম শিকারে পরিণত হন তিনি। ৪ বল খেলে শূন্য রানে আউট হন অভিষেক ওয়ানডেতে নামা এই অলরাউন্ডার।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত, ৩০ ওভার শেষে ধুঁকতে থাকা উইন্ডিজের সংগ্রহ ৭ উইকেটে ১১৯ রান। সাকিব ৭ ওভারে ২ মেডেনসহ ৩ উইকেট নিয়েছেন মাত্র ৮ রান খরচ করে। সাকিব-মোস্তাফিজের পাশাপাশি আলো ছড়াচ্ছেন বাংলাদেশের অভিষিক্ত পেসার হাসান মাহমুদ। তার ঝুলিতে গেছে ২ উইকেট।

Comments

The Daily Star  | English