দিল্লিতে কৃষকদের সঙ্গে স্থানীয়দের সংঘর্ষ, আটক ৪৪

ভারতের দিল্লি ও হরিয়ানার সিংহু সীমান্তে সংঘর্ষের ঘটনায় কৃষকসহ ৪৪ জনকে আটক করেছে দিল্লি পুলিশ।
INDIA-FARMS-PROTESTS.jpg
পুলিশের সামনেই সিংহুতে বিক্ষোভ সমাবেশের সময় এক দল লোক সেখানে পৌঁছে কৃষকদের ওপর হামলা করে। ছবি: রয়টার্স

ভারতের দিল্লি ও হরিয়ানার সিংহু সীমান্তে সংঘর্ষের ঘটনায় কৃষকসহ ৪৪ জনকে আটক করেছে দিল্লি পুলিশ।

এনডিটিভি জানায়, গতকাল শুক্রবার সিংহু সীমান্তে এক আন্দোলনকারী তলোয়ার হাতে পুলিশের ওপর আক্রমণ চালায়। পুলিশের সামনেই সিংহুতে বিক্ষোভ সমাবেশের সময় এক দল লোক সেখানে পৌঁছে কৃষকদের ওপর হামলা করে। কৃষকদের সঙ্গে যারা সংঘর্ষে জড়িয়েছেন, তারা নিজেদের স্থানীয় বাসিন্দা বলে দাবি করেছেন। সংঘর্ষের সময় তারা আন্দোলনরত কৃষকদের তাবু ও ওয়াশিং মেশিন ভাঙচুর করেন। সংঘর্ষের সময় মূলত তাদের ওপরই তলোয়ার নিয়ে চড়াও হয়েছিলেন আন্দোলনরত ওই কৃষক।

শুক্রবারের সংঘর্ষের ঘটনায় ওই কৃষকসহ ৪৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে দিল্লি পুলিশ।

পুলিশের দাবি, শুক্রবার সংঘর্ষের সময় দুই পক্ষ একে অপরকে পাথর ছুড়ে মারছিল। তাদেরকে ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ লাঠিচার্জ ও টিয়ারশেল ছুড়তে বাধ্য হয়। এই সহিংসতায় দিল্লি পুলিশের কয়েকজন কর্মকর্তাও আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

গত তিন মাস ধরে ভারতের বিতর্কিত তিনটি কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে সিংহু সীমান্তে অবস্থান করছেন প্রায় কয়েক লাখ কৃষক।

শুক্রবার আরও কয়েক হাজার কৃষক সেখানে পৌঁছান এবং আরও অনেকে যোগ দেবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ভারত সরকার তাদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলন বিনষ্টের চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেছেন কৃষক ইউনিয়ন নেতারা।

আজ শনিবার মহাত্মা গান্ধীর মৃত্যুবার্ষিকীতে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত অনশন করছেন কৃষক নেতারা। তারা দিনটিকে ‘সদ্ভাবনা দিবস’ হিসেবে পালন করছেন।

শুক্রবার গাজীপুরেও কয়েক হাজার কৃষক দিল্লি-মীরাট এক্সপ্রেসওয়েতে বিক্ষোভ করেন। গাজীপুর সীমান্ত ছেড়ে যেতে গাজিয়াবাদ প্রশাসনের আল্টিমেটাম সত্ত্বেও কয়েক হাজার কৃষক দিল্লি-মীরাট এক্সপ্রেসওয়েতে অবস্থান নেন।

সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা ভারতপুরম আংশু জৈন জানান, গাজীপুরের বিক্ষোভ স্থান ও আশপাশে প্রাদেশিক সশস্ত্র কনস্টাবুলারি (পিএসি), দাঙ্গাবিরোধী গিয়ার, র‌্যাপিড অ্যাকশন ফোর্স (আরএএফ) ও সিভিল পুলিশসহ প্রায় ৩ হাজার নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েন করা হয়েছে।

গত ২৬ মার্চ ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভরত কৃষকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে দিল্লি রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। এ সহিংসতায় ট্রাক্টর উল্টে এক কৃষকের মৃত্যু হয়। যদিও বিক্ষোভকারীদের দাবি, পুলিশের গুলিতে মারা গেছেন তিনি। সেদিনের সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে আটক করছে দিল্লি পুলিশ। অনুসন্ধানের জন্য নয় জন কৃষক নেতাকেও জিজ্ঞাসাবাদ করতে ডাকা হয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

Hefty power bill to weigh on consumers

The government has decided to increase electricity prices by Tk 0.34 and Tk 0.70 a unit from March, which according to experts will have a domino effect on the prices of essentials ahead of Ramadan.

4h ago