ক্যাঙারু অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় পশু বিধায় কেক কাটেননি রাহানে

অজিদের সম্মানে আঘাত লাগতে পারে ভেবে রাহানে অনুরোধ রাখতে রাজী হননি।
rahane cake
ছবি: (সংগৃহীত/টুইটার)

ঘটনা কিছু দিন আগের। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে স্মরণীয় সিরিজ জয়ে ভারতকে নেতৃত্ব দিয়ে তখন সবে দেশে ফিরেছেন আজিঙ্কা রাহানে। অনবদ্য সাফল্য অর্জনের পথে অগ্রণী ভূমিকা রাখায় এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানকে নিয়ে ভক্ত-সমর্থকদের আগ্রহ সঙ্গত কারণেই ছিল তুঙ্গে। উৎসব, উল্লাস আর উদযাপনের মাধ্যমে রাজকীয় কায়দায় তাকে জানানো হয় অভ্যর্থনা। বিমানবন্দর থেকে শুরু করে তার বাড়ির আঙিনা- ক্রিকেটপ্রেমী ভারতীয়দের ঢল ছিল সর্বত্র।

সেসবের মাঝে রাহানের কাছে রাখা হয়েছিল কেক কাটার মতো ‘আপাতদৃষ্টিতে নিরীহ’ একটি অনুরোধ। তবে অজিদের সম্মানে আঘাত লাগতে পারে ভেবে রাহানে সেদিন তা করতে রাজী হননি। কিন্তু কেন? শনিবার ভারতের নামী ক্রিকেট ধারাভাষ্যকার ও বিশ্লেষক হার্শা ভোগলের সঙ্গে আলাপচারিতায় রাহানে দিয়েছেন ভক্তদের অনুরোধ না রাখার ব্যাখ্যা।

৩২ বছর বয়সী এই তারকা বলেছেন, কেকটি ছিল ক্যাঙারু আকৃতির, ‘অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় পশু ক্যাঙারু। তাই আমি সেই কেক কাটতে চাইনি। প্রতিপক্ষকে সম্মান দেওয়া উচিত। আপনি জিততেই পারেন, তৈরি করতে পারেন ইতিহাসও। তারপরও প্রতিপক্ষকে সম্মান করা উচিত। সেই জন্যই আমি ক্যাঙারু কেকটা কাটতে চাইনি।’

ওই কথোপকথনের একটি ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে টুইটারে পোস্ট করেছেন ভোগলে। তিনি ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘ক্যাঙারু আকৃতির ওই কেক আর তা কাটতে না চাওয়ার কারণটা সম্পর্কে রাহানের কাছ থেকে জানার ইচ্ছা ছিল। এই ছোট ছোট বিষয়ই একজন মানুষ সম্পর্কে আপনাকে আরও বাড়তি ধারণা দেয়।’

রাহানের অধিনায়কত্বের কারিশমায় চার টেস্টের বোর্ডার-গাভাস্কার সিরিজের ট্রফি ভারত ধরে রাখে ২-১ ব্যবধানে জিতে। শেষ ম্যাচে ৩ উইকেটের রোমাঞ্চকর জয়ে অজিদের ব্রিসবেন দুর্গেরও পতন ঘটায় তারা। প্রথম টেস্টের পর নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলির ছুটি ও এক ঝাঁক তারকা খেলোয়াড় চোটে ছিটকে যাওয়া সত্ত্বেও ভাঙাচোরা দল নিয়ে রাহানে যে ভেলকি দেখান, সে কাহিনী নিঃসন্দেহে অমর স্থান করে নিয়েছে ক্রিকেট ইতিহাসের পাতায়।

Comments