অভ্যুত্থানের আগে মিয়ানমারকে ৩৫ কোটি ডলার দিয়েছে আইএমএফ

সামরিক অভ্যুত্থানের আগে গত সপ্তাহে মিয়ানমারকে ৩৫ কোটি ডলার বরাদ্দ দিয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)।
Myanmar coup
ছবি: রয়টার্স ফাইল ফটো

সামরিক অভ্যুত্থানের আগে গত সপ্তাহে মিয়ানমারকে ৩৫ কোটি ডলার বরাদ্দ দিয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)।

করোনা মহামারি মোকাবিলায় জরুরি সহায়তা প্যাকেজের আওতায় এই বরাদ্দ দেওয়ার পরই মিয়ানমারের সেনাবাহিনী অভ্যুত্থানের মাধ্যমে দেশটির নিয়ন্ত্রণ নেয়।

গতকাল বুধবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, আইএমএফ থেকে মিয়ানমারকে দেওয়া ওই অর্থ ব্যয়ের ক্ষেত্রে কোনো শর্ত নেই।

গত ১৩ জানুয়ারি আইএমএফ’র বোর্ড সভায় মিয়ানমারের জন্য অর্থ বরাদ্দের অনুমোদন দেওয়া হলে গত সপ্তাহে দক্ষিণ এশিয়ার দেশটির কাছে তা হস্তান্তর করা হয়।

এরপরই গত সোমবার সকালে মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি’র (এনএলডি) নেত্রী অং সান সু চিসহ কয়েকজন জ্যেষ্ঠ নেতাকে গ্রেপ্তারের পর দেশটির নিয়ন্ত্রণ নেয় সেনাবাহিনী।

বিশ্লেষকরা মনে করছেন, অভ্যুত্থানের পর মিয়ানমারের কাছ থেকে আইএমএফ’র অর্থ ফেরত পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা আছে।

আইএমএফ’র এক মুখপাত্র রয়টার্সকে পাঠানো ইমেইলে গত সপ্তাহে সংস্থাটির পক্ষ থেকে অর্থ দেওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেছেন, ‘আমরা পরিস্থিতির ওপর নিবিড়ভাবে নজর রাখছি। মিয়ানমারের অর্থনীতি ও জনগণের ওপর এর প্রভাব কেমন হবে, তা নিয়ে আমরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।’

এ দিকে দায়িত্ব নেওয়ার দুই সপ্তাহের মধ্যেই প্রথম আন্তর্জাতিক সংকটের মুখে পড়েছেন আইএমএফ-এর প্রভাবশালী শেয়ারহোল্ডার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। মিয়ানমারের সেনা কর্মকর্তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের হুমকি দিয়েছেন তিনি। এছাড়াও, মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মিয়ানমারকে বৈদেশিক সহায়তা দেওয়ার বিষয়টি পর্যালোচনা করে দেখার ঘোষণা দিয়েছে।

সংবাদ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নতুন বরাদ্দসহ গত সাত মাসের মধ্যে মিয়ানমারকে জরুরিভাবে করোনা মোকাবিলায় ৭০ কোটি ডলার সরবরাহ করেছে আইএমএফ।

গত ১৩ জানুয়ারি আইএমএফ’র বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মিয়ানমারকে বরাদ্দ দেওয়া অর্থ কোভিড ১৯ মহামারির কারণে দেশটির জরুরি পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে সহায়তা করবে।

আরও পড়ুন:

এপির বিশ্লেষণ: মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অভ্যুত্থানের নেপথ্যে

যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধ ঝুঁকিতে মিয়ানমার

‘সু চি সরকারের বেশিরভাগ ক্ষমতা সামরিক বাহিনীর হাতেই ছিল’

রোহিঙ্গা প্রতিক্রিয়া: সু চি-সেনাবাহিনী একই

অভ্যুত্থান মেনে না নেওয়ার আহ্বান সু চির

যে কারণে সু চিকে সরিয়ে ক্ষমতা নিলো সেনাবাহিনী

মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের নিন্দায় বিশ্ব সম্প্রদায়

‘নির্বাচনে কারচুপি’র অজুহাতে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অভ্যুত্থান

মিয়ানমারে শান্তি, স্থিতিশীলতা ও গণতন্ত্র চায় বাংলাদেশ

ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে মিয়ানমারের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ

ধীর গতির ইন্টারনেট, মিয়ানমারে ব্যাংকিং কার্যক্রম বন্ধ

মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থান, সু চি আটক

Comments

The Daily Star  | English