লোহালিয়া সেতু নির্মাণকাজের সময় বাড়ছে আরও ২ বছর

পটুয়াখালী জেলা শহর সংলগ্ন লোহালিয়া নদীর ‌ওপর সেতু নির্মাণকাজের সময়সীমা আরও দুই বছর বাড়ছে। বাড়তি সময় অনুযায়ী ২০২২ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ করতে হবে। শনিবার দুপুরে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) প্রধান প্রকৌশলী আবদুর রশিদ খান সেতুর নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করে এ বিষয়ে সম্মতি জানান।
পটুয়াখালীতে নির্মাণাধীন লোহালিয়া সেতু। ছবি: সোহরাব হোসেন

পটুয়াখালী জেলা শহর সংলগ্ন লোহালিয়া নদীর ‌ওপর সেতু নির্মাণকাজের সময়সীমা আরও দুই বছর বাড়ছে। বাড়তি সময় অনুযায়ী ২০২২ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ করতে হবে। শনিবার দুপুরে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) প্রধান প্রকৌশলী আবদুর রশিদ খান সেতুর নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করে এ বিষয়ে সম্মতি জানান।

প্রকৌশলী আবদুর রশিদ খান সাংবাদিকদের জানান, গত বছরের ডিসেম্বরে লোহালিয়া নদীর উপর সেতুর নির্মাণকাজ শেষ করার কথা ছিল। তবে কোভিড -১৯ মহামারীর কারণে সেতুটির নির্মাণকাজ ২০২২ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হচ্ছে।

তিনি কাজের মান নিশ্চিত করে নতুন সময়সীমার মধ্যে সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ করার জন্য ঠিকাদারদের নির্দেশ দেন।

নবারুন ট্রেডার্স এবং আবুল কালাম আজাদ নামের দুটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সেতুটি নির্মাণ করছে।

লোহালিয়া নদীর ওপর ১৪টি স্প্যানবিশিষ্ট ৫৭৬ দশমিক ২৫ মিটার দীর্ঘ সেতুটি তৈরিতে ব্যয় হচ্ছে ৪৭ দশমিক ১৯ কোটি টাকা।

এর আগে এলজিইডির প্রধান প্রকৌশলী কলাপাড়া উপজেলার আন্ধারমাণিক নদীর ওপর নির্মাণাধীন সৈয়দ নজরুল ইসলাম সেতুর নির্মাণকাজের অগ্রগতিও পরিদর্শন করেন। পায়রা বন্দর সংযোগকারী এ সেতুর ৯০ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে এবং চলতি বছরের জুন নাগাদ এ সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে জানানো হয়েছে।

এলজিইডির অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. মোসলেম উদ্দিন, আলী আক্তার, এ কে এম লুৎফুর রহমান, মোখলেছুর রহমান, প্রকল্প পরিচালক মোশররফ হোসেন, মোল্লা মিজানুর রহমান, পটুয়াখালী পৌরসভার মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ, পটুয়াখালী এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুস সাত্তারসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Comments

The Daily Star  | English
Qatar emir’s visit to Bangladesh

Qatari Emir Al Thani arrives in Dhaka on a 2-day visit

Qatari Emir Sheikh Tamim Bin Hamad Al Thani arrived in Dhaka for a two-day visit today afternoon

2h ago