প্রিটোরিয়াসের বিধ্বংসী বোলিংয়ে সিরিজে ফিরল দ.আফ্রিকা

লাহোরে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তানকে ১৪৪ রানে আটকে ২২ বল আগে জিতেছে ৬ উইকেটে ম্যাচ জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা।
Dwaine Pretorius
ছবি: টুইটার

আগের ম্যাচে শেষ মুহূর্তে গিয়ে পাকিস্তানের কাছে হারতে হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকাকে। এবার ডোয়াইন প্রিটোরিয়াসের বিধ্বংসী বোলিংয়ে ঘুরে দাঁড়ালো তারা। প্রিটোরিয়াস পাকিস্তানকে নাগালের মধ্যে আটকে রাখার পর বাকি কাজ সেরেছেন রেজা হেনড্রিকস ও পাইট ফন বিয়ন।

লাহোরে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তানকে ১৪৪ রানে আটকে ২২ বল আগে জিতেছে ৬ উইকেটে ম্যাচ জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। দলের জয়ে সবচেয়ে বড় অবদান প্রিটোরিয়াসের। ৪ ওভার বল করে মাত্র ১৭ রানে ৫ উইকেট নেন তিনি।

সহজ রান তাড়ায় হেনড্রিকস ৩০ বলে ৪২, বিয়ন ৩২ বলে ৪২, ডেভিড মিলার ১৯ বলে ২৫ আর অধিনায়ক হেনরিক ক্লাসেনের ব্যাট থেকে আসে ৯ বলে ১৭ রান। এই জয়ে তিন ম্যাচ সিরিজে ১-১ সমতায় আসল সফরকারীরা।

শনিবার সন্ধায় টস জিতে পাকিস্তানকে ব্যাট করতে পাঠায় প্রোটিয়ারা। আগের ম্যাচে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করা পাকিস্তানের কিপার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান আবার তুলেন ঝড়। তবে আরেক পাশে চলে উইকেট পতনের মিছিল। দ্বিতীয় ওভারে বল হাতে নিয়েই পাক অধিনায়ক বাবর আজমকে ফেরান প্রিটোরিয়াস। আন্দেলো ফেহলেকোয়াও তুলে নেন হায়দার আলিকে।

দ্রুত উইকেট পড়ায় রানের চাকাও থমকে যায় স্বাগতিকদের। মাঝের ওভারে এসে আবার আঘাত হানেন প্রিটোরিয়াস। ফিফটি করা রিজওয়ানসহ নেন আরও দুই উইকেট। চায়নাম্যান তাবরাইজ শামসিও বাড়ান চাপ। ৯৭ রানেই ৫ উইকেট হারানো পাকিস্তান শেষ পর্যন্ত দেড়শোর কাছে যেতে পারে ফাহিম আশরাফের ব্যাটে।

শেষ দিকে আরও দুই উইকেট নিয়ে ৫ উইকেট পুরো করেন প্রিটোরিয়াস।

১৪৫ রানের লক্ষ্যে জান্নেমান মালান আর জেজে স্মোটসকে শুরুতে হারালেও দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচে ছিল হেনড্রিকস-বিয়নের ব্যাটে। তৃতীয় উইকেটে দুজনের জুটিতে আসে ৭৭ রান। এতেই ঠিক হয়ে যায় ম্যাচের গতিপথ। এই দুজন ফিরলেও মিলার-ক্লাসেন মিলে বাকি কাজ সেরেছেন দ্রুত।

রোববার সিরিজ নির্ধারনী শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুদল।

Comments

The Daily Star  | English

Create right conditions for Rohingya repatriation: G7

Foreign ministers from the Group of Seven (G7) countries have stressed the need to create conditions for the voluntary, safe, dignified, and sustainable return of all Rohingya refugees and displaced persons to Myanmar

1h ago