অশ্বিনের ঘূর্ণি জাদুতে ইংল্যান্ডকে গুঁড়িয়ে নিয়ন্ত্রণে ভারত

আচমকা লাফিয়ে ওঠা কিংবা নিচু হয়ে যাওয়া কিংবা লম্বা বাঁক, কোনোকিছুরই কমতি হলো না এমএ চিদাম্বরম স্টেডিয়ামে। সেখানে ইংল্যান্ডের স্পিনারদের পর ভারতের ঘূর্ণি বোলাররাও করলেন রাজত্ব।
ashwin
ছবি: বিসিসিআই টুইটার

শুরু থেকে ব্যাটসম্যানদের জন্য কঠিন থাকা উইকেট ভেলকি দেখাল আরও। আচমকা লাফিয়ে ওঠা কিংবা নিচু হয়ে যাওয়া কিংবা লম্বা বাঁক, কোনোকিছুরই কমতি হলো না এমএ চিদাম্বরম স্টেডিয়ামে। সেখানে ইংল্যান্ডের স্পিনারদের পর ভারতের ঘূর্ণি বোলাররাও করলেন রাজত্ব। তাতে দ্বিতীয় দিনে পতন হলো ১৫ উইকেটের। রবিচন্দ্রন অশ্বিনের নৈপুণ্যে সফরকারীদের অল্প রানে গুঁড়িয়ে দিয়ে চালকের আসনে বসে পড়লেন বিরাট কোহলিরা।

রবিবার চেন্নাইতে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে ২৪৯ রানে এগিয়ে আছে ভারত। দ্বিতীয় ইনিংসে তাদের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৫৪ রান। ক্রিজে আছেন প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান রোহিত শর্মা ২৫ ও চেতেশ্বর পূজারা ৭ রানে।

জ্যাক লিচ এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন ওপেনার শুবমান গিলকে। ফলে দলীয় ৪২ রানে ভারতের উদ্বোধনী জুটির অবসান হয়। রিভিউ নিয়েও বাঁচতে না পারা গিলের রান ১৪।

রোহিত অবশ্য সৌভাগ্যবান। প্রথমে লিচের বলে স্লিপের একটু সামনে পড়ে তার ক্যাচ। মঈন আলীর পরের ওভারে স্টাম্পিংয়ের সুযোগ হাতছাড়া করেন উইকেটরক্ষক বেন ফোকস। এরপর আম্পায়ার তার বিপক্ষে এলবিডব্লিউয়ের সিদ্ধান্ত দিলেও রিভিউ নিয়ে মাঠে থাকেন তিনি।

england india
ছবি: আইসিসি টুইটার

এর আগে প্রথম দিনের ৩০০ রান নিয়ে খেলতে নেমে ৩২৯ রানে অলআউট হয় ভারত। দলটির ইনিংসে ছিল না কোনো অতিরিক্ত রান। এই খাত থেকে কোনো কিছু যোগ হওয়া ছাড়া টেস্টে সর্বোচ্চ দলীয় স্কোরের রেকর্ড এখন তাদের। জবাবে ইংল্যান্ড পৌঁছাতে পারে ১৩৪ পর্যন্ত। ফলে কোহলিরা পান ১৯৫ রানের বিশাল লিড।

সকালে ভারতের ইনিংস টেকে মাত্র ৭.৫ ওভার। ২৯ রান যোগ করতেই হাতে থাকা ৪ উইকেট হারায় তারা। রিশভ পান্ত ফিফটি তুলে নিয়ে অপরাজিত থাকেন ৫৮ রানে। অপরপ্রান্তে উইকেট পড়ে জোড়ায় জোড়ায়।

দিনের দ্বিতীয় ওভারে অক্ষর প্যাটেল ও ইশান্ত শর্মাকে বিদায় করেন মঈন। সবমিলিয়ে ৪ উইকেট শিকার করতে এই অফ স্পিনারের খরচা ১২৮ রান। তিন বলের মধ্যে কুলদ্বীপ যাদব ও মোহাম্মদ সিরাজকে ফিরিয়ে ভারতের ইনিংসের ইতি টানেন পেসার অলি স্টোন। তিনি ৩ উইকেট নেন ৪৭ রানে। বাঁহাতি স্পিনার লিচ ৭৮ রানে দখল করেন ২ উইকেট।

এরপর মধ্যাহ্ন বিরতির আগেই ৪ উইকেট খুইয়ে মহা বিপর্যয়ে পড়ে ইংলিশরা। সেই বিপদ থেকে তারা আর উদ্ধার পায়নি। দলটির সাত ব্যাটসম্যানই যেতে পারেননি দুই অঙ্ক। ফোকস ১০৭ বলে সর্বোচ্চ ৪২ রানে অপরাজিত থাকেন।

রানের খাতা খোলার আগেই উইকেট হারানো ইংল্যান্ড গড়তে পারেনি কোনো জুটি। ষষ্ঠ উইকেটে অলি পোপকে সঙ্গে নিয়ে ৩৫ রান যোগ করেন ফোকস, নবম উইকেটে লিচকে নিয়ে ২৫। তাদের আর কোনো জুটি ছোঁয়নি ২০।

axar root
ছবি: বিসিসিআই টুইটার

অশ্বিন ২৯তম বারের মতো সাদা পোশাকে ফাইফারের দেখা পান। প্রতিপক্ষের টপ অর্ডারকে এলোমেলো করে দিয়ে তিনি ৫ উইকেট নেন ৪৩ রানে। ইংলিশ অধিনায়ক জো রুটকেসহ ২ উইকেট পান বাঁহাতি স্পিনার অক্ষর। অভিজ্ঞ পেসার ইশান্তও সমান সংখ্যক উইকেট দখল করেন। বাকিটি গেছে সিরাজের ঝুলিতে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

(দ্বিতীয় দিন শেষে)

ভারত প্রথম ইনিংস: (আগের দিন ৩০০/৬) ৯৫.৫ ওভারে ৩২৯ (পান্ত ৫৮*, অক্ষর ৫, ইশান্ত ০, কুলদ্বীপ ০, সিরাজ ৪; ব্রড ০/৩৭, স্টোন ৩/৪৭, লিচ ২/৭৮, স্টোকস ০/১৬, মঈন ৪/১২৮, রুট ১/২৩)

ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংস: ৫৯.৫ ওভারে ১৩৪ (বার্নস ০, সিবলি ১৬, লরেন্স ৯, রুট ৬, স্টোকস ১৮, পোপ ২২, ফোকস ৪২*, মঈন ৬, স্টোন ১, লিচ ৫, ব্রড ০; ইশান্ত ২/২২, অশ্বিন ৫/৪৩, অক্ষর ২/৪০, কুলদ্বীপ ০/১৬, সিরাজ ১/৫)

ভারত দ্বিতীয় ইনিংস: ১৮ ওভারে ৫৪/১ (রোহিত ২৫*, গিল ১৪, পূজারা ৭*; স্টোন ০/৮, লিচ ১/১৯, মঈন ০/১৯)।

Comments

The Daily Star  | English
Will the Buet protesters’ campaign see success?

Ban on student politics: Will Buet protesters’ campaign see success?

One cannot help but note the irony of a united campaign protesting against student politics when it is obvious that student politics is very much alive on the Buet campus

8h ago