বার্সার আর সুযোগ দেখছেন না কোমান

ঘরের মাঠে আগের দিন প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর (পিএসজি) কাছে বিধ্বস্ত হয়েছে বার্সেলোনা। হজম করেছে ৪টি গোল। টিকে থাকতে হলে প্রতিপক্ষের মাঠে অবিশ্বাস্য কিছু করতে হবে বার্সেলোনাকে। আর এ ক্লাবটির ইতিহাসও রয়েছে এমন কিছু করার। কিন্তু এবার আর এমন কোনো সুযোগ দেখছেন না দলের প্রধান কোচ রোনাল্ড কোমান।
koeman
ছবি: টুইটার

ঘরের মাঠে আগের দিন প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর (পিএসজি) কাছে বিধ্বস্ত হয়েছে বার্সেলোনা। হজম করেছে ৪টি গোল। টিকে থাকতে হলে প্রতিপক্ষের মাঠে অবিশ্বাস্য কিছু করতে হবে বার্সেলোনাকে। আর এ ক্লাবটির ইতিহাসও রয়েছে এমন কিছু করার। কিন্তু এবার আর এমন কোনো সুযোগ দেখছেন না দলের প্রধান কোচ রোনাল্ড কোমান।

২০১৭ সালে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে পিএসজির মাঠ থেকে ৪-০ গোলে হেরে ফিরেছিল বার্সেলোনা। কিন্তু ফিরতি পর্বে ন্যু ক্যাম্পে ৬-১ ব্যবধানে জিতে কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছিল কাতালানরাই। কিন্তু এবার বিষয়টি হয় গেছে উল্টো। ঘরের মাঠে ৪-১ গোলে হেরেছে তারা। তাই প্রতিপক্ষের মাঠ থেকে দারুণ কিছু করা কঠিনই দলটির জন্য।

তাই বাস্তবতা মেনে দলের কোচ কোমান বললেন, 'আমাদের অবশ্যই খেলে যেতে হবে। আমি মিথ্যে বলতে পারি, কিন্তু ৪-১ অনেক কঠিন। আমাদের তেমন কোনো সুযোগ দেখছি না।'

আগের দিন দ্বিতীয়ার্ধে সফরকারীদের ছিল একচ্ছত্র প্রাধান্য থাকলেও প্রথমার্ধে সমান তালে লড়াই হয়েছে। এ অর্ধে এগিয়েও যেতে পারতো তারা। অবিশ্বাস্য একটি মিস করেছেন দেম্বেলে। এছাড়া আরও বেশ কিছু সুযোগ ছিল। সবমিলিয়ে কঠিন বাস্তবতাই দেখেছেন বার্সা কোচ, 'প্রথমার্ধে লড়াইটা সমান তালে হয়েছে এবং (উসমান) দেম্বেলের একটা পরিষ্কার সুযোগ ছিল আমাদের এগিয়ে দেওয়ার, কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে আমাদের রক্ষণভাগে অনেক সমস্যা ছিল। হ্যাঁ, দ্বিতীয়ার্ধে (কঠিন বাস্তবতা টের পেয়েছি)। আমাদের অবশ্যই মানতে হবে তারা অনেক ভালো ছিল।'

মূলত এক কিলিয়ান এমবাপেই ম্যাচের পার্থক্য গড়ে দেন। তুলে নেন দারুণ এক হ্যাটট্রিক। নকআউট পর্বে বার্সার মাঠে এমন কীর্তি এ তরুণই প্রথম করলেন। সবমিলিয়ে দারুণ খেলেছে তার দল। কোমানের ভাষায়, 'তারা অনেক ভালো ছিল এবং অনেক কার্যকরী। বিশেষ করে (কিলিয়ান) এমবাপে। আমাদের চেয়ে অনেক বেশি পরিণত দল ছিল। আমাদের এটা মানতে হবে এবং এগিয়ে যেতে হবে। আমরা জানি এসব জিনিস হতে পারে। কিন্তু তাদের দল আমাদের চেয়ে এগিয়ে ছিল।'

ম্যাচে অনেক ভুলই করেছেন কাতালানরা। আর দুর্বলতাগুলো কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করবেন বলে জানান এ কোচ, 'তাদের দলটি এরমধ্যেই অনেক সম্মিলিত এবং আমরা ক্রান্তিকালীন সময় পার করছি। আমাদের যে সকল দুর্বলতা রয়েছে সেগুলো আমাদের অবশ্যই উন্নত করতে হবে। এটাই আমার দায়িত্ব।'

Comments

The Daily Star  | English

New School Curriculum: Implementation limps along

One and a half years after it was launched, implementation of the new curriculum at schools is still in a shambles as the authorities are yet to finalise a method of evaluating the students.

23m ago