যুবরাজ নয়, বাইডেনের পছন্দ বাদশা সালমান

সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সখ্যতা থাকলেও এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত আগ্রহ দেখাননি জো বাইডেন। এমনকি, দুই দেশের মধ্যকার কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনর্মূল্যায়নেরও ইঙ্গিত দিয়েছে বাইডেন প্রশাসন।

সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সখ্যতা থাকলেও এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত আগ্রহ দেখাননি জো বাইডেন। এমনকি, দুই দেশের মধ্যকার কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনর্মূল্যায়নেরও ইঙ্গিত দিয়েছে বাইডেন প্রশাসন।

গতকাল বুধবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, বাইডেনের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি জানিয়েছেন সৌদি আরবের সঙ্গে বাইডেন প্রশাসন সম্পর্ক পুনর্মূল্যায়ন করবে।

গত মঙ্গলবার যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে বাইডেনের কথা হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে জেন সাকি বলেছেন, সৌদি আরবের যুবরাজ নয় বরং বাদশা সালমানের সঙ্গেই আলোচনা করবেন বাইডেন।

তিনি আরও বলেন, ‘প্রথম থেকেই স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছি যে, আমরা সৌদি আরবের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক পুনর্মূল্যায়ন করতে যাচ্ছি। আলোচনা হবে সম-পদের ব্যক্তিদের মধ্যে। এক্ষেত্রে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সম-পদ হলো সৌদি আরবের বাদশা সালমান। আমি আশা করি, উপযুক্ত সময়ে তাদের আলাপ হবে। তবে, সেটি কখন তা আমার জানা নেই।’

২০১৮ সালে সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যার ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশ কয়েকটি দেশের গোয়েন্দা সংস্থার তদন্তে হত্যার নির্দেশনা সৌদি যুবরাজই দিয়েছিলেন বলে জানা গেছে।

বাইডেন নির্বাচনী প্রচারণার সময় জামাল খাশোগি হত্যায় যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বিরুদ্ধে কথা বলেছিলেন। খাশোগি হত্যা ও ইয়েমেন যুদ্ধের প্রসঙ্গ টেনে বাইডেন তার নির্বাচনী প্রচারণায় সৌদি আরবের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের বিদ্যমান সম্পর্ক নতুন করে পর্যালোচনা করার কথাও জানান।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, যুবরাজ সালমান ট্রাম্প ক্ষমতায় থাকাকালে যে স্বাধীনতা পেয়েছিলেন সে তুলনায় বাইডেন প্রশাসন তাকে কিছুটা চাপে ফেলতে পারে। তবে দীর্ঘমেয়াদে মার্কিন-সৌদি সম্পর্কের ক্ষেত্রে সব কিছু ভালো থাকার সম্ভাবনাই বেশি।

Comments

The Daily Star  | English
biman flyers

Biman does a 180 to buy Airbus planes

In January this year, Biman found that it would be making massive losses if it bought two Airbus A350 planes.

5h ago