শীর্ষ খবর

মেট্রোরেল, গভীর সমুদ্রবন্দর, বিমানবন্দরের ৩য় টার্মিনাল বাংলাদেশের চেহারা বদলে দেবে: জাপানের রাষ্ট্রদূত

বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নওকি বলেছেন, ঢাকার মেট্রোরেল, মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্রবন্দর ও ঢাকা বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনালসহ অবকাঠামো প্রকল্পগুলো শেষ হলে বাংলাদেশের চেহারা বদলে যাবে।
বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নওকি। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নওকি বলেছেন, ঢাকার মেট্রোরেল, মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্রবন্দর ও ঢাকা বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনালসহ অবকাঠামো প্রকল্পগুলো শেষ হলে বাংলাদেশের চেহারা বদলে যাবে।

আজ বৃহস্পতিবার জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইস্ট এশিয়া স্টাডি সেন্টার আয়োজিত ‘জাপান লেকচার সিরিজে’ বক্তব্য দেওয়ার সময় এ কথা বলেন তিনি।

রাষ্ট্রদূত ইতো নওকি বলেন, ‘জাপান ও বাংলাদেশের মধ্যে বন্ধুত্ব ও অংশীদারিত্বের ক্ষেত্রে বর্তমানে অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও ব্যবসায়িক অংশীদারিত্বের দিকে বেশি নজর দেওয়া হচ্ছে। এর মধ্যে বিগ-বি উদ্যোগের আওতায় মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্রবন্দর, ঢাকার মেট্রোরেল বা ঢাকা বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনালের কথা বলা যেতে পারে।’

‘এগুলোর কাজ শেষ হলেই এই মেগা অবকাঠামোগুলো দেশের চেহারা বদলে দেবে। বাংলাদেশের ভবিষ্যতের পাশাপাশি জাপান-বাংলাদেশ সম্পর্কের ক্ষেত্রেও এগুলো ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে,’ যোগ করেন তিনি।

বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক অংশীদারিত্বের পাশাপাশি পারস্পরিক বোঝাপড়া ও একাডেমিক মিথস্ক্রিয়া জোরদার করাও গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে ইতো নওকি বলেন, ‘এই লেকচার সিরিজ জাপান ও বাংলাদেশের মানুষের পারস্পরিক বোঝাপড়া আরও নিবিড় করতে ভূমিকা রাখবে।’

বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০তম বার্ষিকী উপলক্ষে এই লেকচার সিরিজের আয়োজন করা হচ্ছে। বাংলাদেশ ও জাপান আগামী বছর কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের ৫০তম বার্ষিকী উদযাপন করবে।

রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘মাইলফলকের এই বছরগুলোতে আমাদের দুই দেশের মধ্যে পারস্পরিক যোগাযোগ আরও বাড়ানো হবে বলে আমি আন্তরিকভাবে আশাবাদী।’

এই অনলাইন লেকচার সিরিজে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অনুষদ সদস্যসহ শতাধিক ব্যক্তি অংশ নেন।

আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি লেকচার সিরিজের দ্বিতীয় অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে।

Comments

The Daily Star  | English

Sundarbans: Bangladesh's shield against cyclones

The coastline of Bangladesh has been hammered by cyclones over and over since time immemorial

23m ago