মুশতাকের মৃত্যু: গাজীপুর জেলা প্রশাসনের ২ সদস্যের তদন্ত কমিটি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় কারাবন্দি লেখক মুশতাক আহমেদের (৫৩) মৃত্যুর ঘটনা তদন্তে দুই সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছেন গাজীপুর জেলা প্রশাসন। আজ শনিবার সকালে গাজীপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) এস এম তরিকুল ইসলাম দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
Mushtaq Ahmed-1.jpg
লেখক মুশতাক আহমেদ। ছবি: ফেসবুক থেকে নেওয়া
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় কারাবন্দি লেখক মুশতাক আহমেদের (৫৩) মৃত্যুর ঘটনা তদন্তে দুই সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছেন গাজীপুর জেলা প্রশাসন। আজ শনিবার সকালে গাজীপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) এস এম তরিকুল ইসলাম দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
 
তিনি বলেন, ‘কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনায় ‍দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে রয়েছেন— জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ওয়াসিউজ্জামান ও উম্মে হাবিবা। তাদের দুই কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।’
 
গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারের ভেতরেই মুশতাক আহমেদ হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। কারা হাসপাতালে নেওয়ার পর তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত ৮টা ২০ মিনিটে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
 
গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ মর্গে মুশতাক আহমেদের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। রাত সাড়ে ৮টার দিকে রাজধানীর লালমাটিয়া সি-ব্লক জামে মসজিদ কমপ্লেক্সে নামাজে জানাজা শেষে আজিমপুর কবরস্থানে মুশতাক আহমেদের দাফন সম্পন্ন হয়।
 

আরও পড়ুন

মুশতাকের ‘গায়েবানা জানাজা’য় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি

আজিমপুরে চিরনিদ্রায় শায়িত লেখক মুশতাক

লালমাটিয়ায় মুশতাকের জানাজা, আজিমপুরে দাফন

মুশতাকের মৃত্যুর পর কিশোরের জীবন নিয়ে শঙ্কা

লেখক মুশতাক আহমেদের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

মুশতাকের মৃত্যুতে রাবি শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ

লেখক মুশতাকের মৃত্যুর পর মধ্যরাতে ঢাবিতে বিক্ষোভ

মুশতাক গতকালও জামিন পাননি, আজ কারাগারে মারা গেলেন

Comments

The Daily Star  | English

BCL promises befitting reply to 'Chhatra Dal, Jamaat-Shibir'

Before the start of the janaza, Saddam Hussain said the quota protesters had destabilised each educational institution in the country

1h ago