জয়ের ধারা বজায় রাখার প্রত্যাশায় কোমান

শিরোপা পুনরুদ্ধার করতে জয়ের ধারা বজায় রাখার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন বার্সার কোচ রোনাল্ড কোমান।
messi and barcelona
ছবি: টুইটার

স্প্যানিশ লা লিগার শিরোপার দৌড়ে দারুণভাবে ফিরে এসেছে বার্সেলোনা। ওসাসুনাকে হারিয়ে ফের পয়েন্ট তালিকার দুইয়ে উঠেছে তারা। লিগের শীর্ষে থাকা অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের সঙ্গে তাদের ব্যবধান মাত্র দুই পয়েন্টের। শিরোপা পুনরুদ্ধার করতে জয়ের ধারা বজায় রাখার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন বার্সার কোচ রোনাল্ড কোমান।

শনিবার রাতে ওসাসুনার মাঠে ২-০ গোলে জিতেছে কাতালানরা। প্রথমার্ধের মাঝামাঝি সময়ে বাঁ পায়ের বুলেট গতির কোণাকুণি শটে দলকে এগিয়ে নেন ডিফেন্ডার জর্দি আলবা। দ্বিতীয়ার্ধের শেষদিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ইলাইশ মোরিবা। ডি-বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শটে বার্সার জার্সিতে নিজের প্রথম গোলটি করেন এই তরুণ মিডফিল্ডার। দুটি গোলেই অবদান রাখেন অধিনায়ক লিওনেল মেসি।

লিগে প্রতিপক্ষের মাঠে বার্সেলোনার এটি টানা অষ্টম জয়। আসরের শেষ ১৬ ম্যাচে কোনো হার নেই তাদের। অথচ প্রথম ১০ ম্যাচের চারটিতেই হেরে খাদের কিনারায় পৌঁছে গিয়েছিল দলটি। ফিকে হয়ে যেতে শুরু করেছিল তাদের শিরোপার স্বপ্ন। তবে মেসি-আলবারা ঘুরে দাঁড়িয়ে ফিরে পেয়েছেন ছন্দ।

ওসাসুনাকে হারানোর পর কোমান তার শিষ্যদের দিয়েছেন ধারাবাহিকতা রক্ষা করার তাগিদ। স্প্যানিশ গণমাধ্যম মার্কার কাছে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের জিততে থাকতে হবে। এটি হয়তো আমাদের সেরা খেলা ছিল না। তবে আমরা ভালো খেলেছি। আর জয় আমাদের প্রাপ্য ছিল।’

koeman
ছবি: টুইটার

‘আমি খুশি। এই ধারাবাহিকতাটা গুরুত্বপূর্ণ এবং আশা করি, আমরা সঠিক পথে চলতে থাকব।’

চ্যাম্পিয়ন হতে আসরের শেষ পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যাওয়ার আকাঙ্ক্ষা প্রকাশ করেছেন কোমান, ‘গত ১৪ বা ১৫ ম্যাচে আমরা যা যা করছি, তা গুরুত্বপূর্ণ। আমরা অ্যাতলেতিকোর সঙ্গে ব্যবধান কমাচ্ছি। বিশেষ করে, আজ (শনিবার) রাতের ফলের পর মৌসুমের শেষ অবধি লিগ (শিরোপা জয়ের জন্য লড়াই) চলবে।’

বার্সেলোনার অর্জন ২৬ ম্যাচে ৫৬ পয়েন্ট। দুই ম্যাচ কম খেলে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে রয়েছে অ্যাতলেতিকো। আসরের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ ৫৩ পয়েন্ট নিয়ে আছে তিনে। তারা খেলেছে ২৫ ম্যাচ। মাদ্রিদ শহরের দুই ক্লাব আজ রবিবার পরস্পরকে মোকাবিলা করবে। খেলা শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টা ১৫ মিনিটে।

Comments

The Daily Star  | English

Fewer but fiercer since the 90s

Though Bangladesh is experiencing fewer cyclones than in the 1960s, their intensity has increased, a recent study has found.

6h ago