নারায়ণগঞ্জে ফ্ল্যাটে বিস্ফোরণে একই পরিবারের ৬ জন দগ্ধ

নারায়ণগঞ্জ শহরের একটি ফ্ল্যাট বাসায় বিস্ফোরণে একই পরিবারের দুই শিশু, দুই কিশোর ও নারীসহ ছয় জন দগ্ধ হয়েছেন। গতকাল সোমবার দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে শহরের মাসদাইর এলাকার কাশেম নগরের একটি ছয়তলা ভবনের ছয়তলার একটি ফ্ল্যাটে এ ঘটনা ঘটে।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

নারায়ণগঞ্জ শহরের একটি ফ্ল্যাট বাসায় বিস্ফোরণে একই পরিবারের দুই শিশু, দুই কিশোর ও নারীসহ ছয় জন দগ্ধ হয়েছেন। গতকাল সোমবার দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে শহরের মাসদাইর এলাকার কাশেম নগরের একটি ছয়তলা ভবনের ছয়তলার একটি ফ্ল্যাটে এ ঘটনা ঘটে।

দগ্ধ ছয় জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থাপিত শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়েছে। জমে থাকা গ্যাস থেকে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা ফায়ার সার্ভিসের।

দগ্ধ ছয় জন হলেন— মো. মিশাল (২৬), তার স্ত্রী মিতা বেগম (২৩), দেড় বছরের ছেলে মিনহাজ, মেয়ে আফসানা (৫), আত্মীয় মাহফুজ (১৩) ও সাব্বির (১৫)।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আরেফিন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘রাত সাড়ে ১২টার দিকে হঠাৎ করে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে একই পরিবারের ছয় জন দগ্ধ হয়েছেন। তাদের মধ্যে দুই জন শিশু, দুই জন কিশোর, একজন নারী ও একজন পুরুষ। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে প্রথমে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার টিকিৎসক তাদেরকে ঢাকা মেডিকেলে পাঠায়।’

বিস্ফোরণের কারণ কী?, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন পাইনি। যাওয়ার আগেই আগুন নিভে যায়। আগুনে ঘরে থাকা বিছানার বালিশ, তোশক ও কাপড় পুড়ে গেছে। আর বিস্ফোরণে ফ্ল্যাটের দরজা ও জানলার কাচগুলো ভেঙে গেছে। আমরা অক্ষত অবস্থায় গ্যাসের একটি সিলিন্ডার পেয়েছি। ধারণা করা যাচ্ছে, গ্যাসের লাইন বা সিলিন্ডার থেকে লিকেজ হয়ে ঘরের ভেতর গ্যাস জমে ছিল। পরিবারের কেউ সিগারেট ধরাতে গিয়ে আগুন জ্বালালে কিংবা বিদ্যুতের স্পার্ক থেকে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। তবে, তদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে।’

‘ওই সময় শিশু-কিশোররা ঘুমিয়ে ছিল। অন্য দুই জন জেগেই ছিল। পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত পরে জানানো হবে’, বলেন তিনি।

নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) আসাদুজ্জামান ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘দগ্ধদের শরীরের ৫০ ভাগের বেশি পুড়ে গেছে। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদেরকে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়েছে।’

Comments

The Daily Star  | English

Dozens injured in midnight mayhem at JU

Police fire tear gas, pellets at quota reform protesters after BCL attack on sit-in; journalists, teacher among ‘critically injured’

3h ago