কোম্পানীগঞ্জে আ. লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ

মিজানুর রহমান বাদলসহ ১০৫ জনের নামে আদালতে মামলা

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের চাপরাশিরহাট বাজারে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ. লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলসহ ১০৫ জনের নামে একটি মামলা করা হয়েছে।
মিজানুর রহমান বাদল। ছবি: সংগৃহীত

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের চাপরাশিরহাট বাজারে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ. লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলসহ ১০৫ জনের নামে একটি মামলা করা হয়েছে।

মামলায় মিজানুর রহমান বাদলকে প্রধান আসামি করে ১০৫ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত ১৫০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

বাদীপক্ষের আইনজীবী শংকর চন্দ্র ভৌমিক দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, আজ সোমবার সকালে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক সালাউদ্দিন প্রিটন বাদী হয়ে নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের দুই নং আমলি আদালতে এই মামলা করেন।

মামলাটি আমলে নিয়ে বিকেলে শুনানি শেষে দুই নং আমলি আদালতের জ্যৈষ্ঠ বিচারিক হাকিম মোসলেউদ্দিন মিজান মামলাটি তদন্ত করে পিবিআই নোয়াখালী কার্যালয়কে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

নোয়াখালী কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক সাখাওয়াত হোসেন মামলার বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন।

মামলার বাদী সালাউদ্দিন প্রিটন অভিযোগ করেন, ‘গত ১৯ ফেব্রুয়ারি বিকেলে উপজেলার চর ফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশিরহাট বাজারে এলাকা আধিপত্য বিস্তার নিয়ে মিজানুর রহমান বাদল ও তার সমর্থকরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে হামলা চালান এবং ব্যাপক ভাঙচুর করেন।’

উল্লেখ্য, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি বিকেলে উপজেলার চর ফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশিরহাট বাজারে এলাকা আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আ. লীগের দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কিরসহ ও ৯জন গুলিবিদ্ধ অর্ধশতাধিক মানুষ আহত হয়। পরে,  ২০ ফেব্রুয়ারি রাতে গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক মুজাক্কির ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান।

আরও পড়ুন:

Comments

The Daily Star  | English

Freeze ex-IGP Benazir’s 119 more properties: court

A Dhaka court today ordered the authorities concerned to freeze assets which former IGP Benazir Ahmed and his family members bought through 119 deeds

57m ago