‘তুমি জানো যে, তুমি যেতে পারো না,’ মেসিকে লাপোর্তা

দ্বিতীয় মেয়াদে বার্সেলোনার সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন লাপোর্তা।
messi laporta
ছবি: টুইটার

সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর কিছু দিন আগে হোয়ান লাপোর্তা বলেছিলেন, লিওনেল মেসি বার্সেলোনাকে ভালোবাসে। আর এই ভালোবাসার কারণে তিনি ন্যু ক্যাম্পে থেকে যাবেন। শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানেও একটা বড় অংশ জুড়ে বার্সার অধিনায়ককে নিয়ে কথা বলেছেন লাপোর্তা। এই স্প্যানিশ রাজনীতিবিদ ক্লাব না ছাড়ার জন্য সরাসরি আকুতি জানিয়েছেন মেসির প্রতি।

বুধবার দ্বিতীয় মেয়াদে বার্সেলোনার সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন লাপোর্তা। তার শপথ গ্রহণের সময় উপস্থিত ছিলেন মেসি। এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে জড়িয়ে ধরে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন তিনি।

প্রথম দফায় ২০০৩ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত বার্সার সভাপতি ছিলেন লাপোর্তা। সেসময়ই কাতালানদের মূল দলে অভিষেক হয়েছিল মেসির। বাকিটা ইতিহাস। বার্সায় মেসির প্রভাব ও অর্জন এতটাই বেশি যে, বর্তমান কোচ রোনাল্ড কোমান তাকে সম্প্রতি দেন সেরার তকমা, ‘আমি মনে করি, সে ক্লাবের ইতিহাসের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। সে এখনও আমাদের সঙ্গে থাকায় সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ।’

এমন কাউকে অন্য কোথাও যেতে দিতে রাজী হওয়ার কথা নয় কোনো ক্লাবের। কিন্তু গত মৌসুমের শেষে মেসি ছাড়তে চেয়েছিলেন বার্সা। তার বর্তমান চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে আগামী গ্রীষ্মে। এখনও নতুন চুক্তির বিষয়ে দুপক্ষের মধ্যে আলাপের খবর শোনা যায়নি। তবে মেসিকে ধরে রাখতে লাপোর্তা যে মুখিয়ে আছেন, তা বোধগম্য।

laporta messi
ছবি: টুইটার

৫৮ বছর বয়সী এই আইনজীবী বলেছেন, ‘আমার প্রথম মেয়াদে বার্সার ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড়টিকে পেয়েছিলাম। কিন্তু আমরা সফল হয়েছিলাম সংহতি ধরে রাখার কারণে। বার্সেলোনার ঐক্যই এই সংহতির যোগান দিয়ে থাকে এবং আমি সবাইকে তারা ক্লাবের জন্য কী কী করতে পারে তা নিয়ে ভাবার আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।’

বন্ধুপ্রতিম মেসিকে নিয়ে লাপোর্তা যোগ করেছেন, ‘আমি এখানে এসেছি সিদ্ধান্ত নিতে। যেমন- লিওকে রাখার চেষ্টা করতে হবে। একটা সুবিধা হলো, সে এখানেই (বার্সায়) আছে এখনও এবং সে নিজেও এটা জানে। (মেসি) তুমি জানো, তোমাকে কতটা স্নেহ করি আমি। তোমাকে এখানে ধরে রাখতে যা কিছু সম্ভব সবই করব আমরা। লিও, তুমি জানো যে, তুমি (বার্সা) ছেড়ে যেতে পারো না।’

বার্সেলোনার অর্থনৈতিক দুরবস্থা নিয়ে তার ভাষ্য, ‘আমাদের স্তবগীতিতে আছে, একতাবদ্ধ থাকার কারণে আমরা শক্তিশালী। এই কঠিন সময়েই এটা আরও জরুরি। আমরা জানি, এটা কীভাবে করতে হবে। মহামারি শেষ হলে আমাদের রাজস্ব আয়ও স্বাভাবিক হয়ে আসবে। আমি ভালো কিছু সহকর্মী পেয়েছি। তাই নেতৃত্ব দেওয়া সহজ হবে।’

উল্লেখ্য, ৩৩ বছর বয়সী মেসির সম্ভাব্য নতুন ঠিকানার তালিকায় আছে বেশ কয়েকটি ধনাঢ্য ক্লাবের নাম। তাদের মধ্যে ইংলিশ পরাশক্তি ম্যানচেস্টার সিটি ও ফরাসি লিগ ওয়ানের শিরোপাধারী পিএসজিকে এগিয়ে রাখা হচ্ছে দৌড়ে।

Comments

The Daily Star  | English

The bond behind the fried chicken stall in front of Charukala

For over two decades, a business built on mutual trust and respect between two people from different faiths has thrived in front of Dhaka University's Faculty of Fine Arts

8h ago