ওশাদা-থিরিমান্নের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়াল শ্রীলঙ্কা

অ্যান্টিগা টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে ৪ উইকেটে ২৫৫ করেছে লঙ্কানরা। হাতে ৫ উইকেট নিয়ে লিড নিয়ে ফেলেছে ১৫৩ রানের।
Lahiru Thirimanne and Oshada Fernando
ছবি: আইসিসি টুইটার

প্রথম ইনিংসে জেসন হোল্ডারের পেসে ধসে গিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। ১০২ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ঘুরে দাঁড়িয়েছে তারা। লাহিরু থিরিমান্নে আর ওশাদা ফার্নেন্দোর পর সফরকারীদের টানছেন ধনঞ্জয়া ডি সিলভা আর পাথুম নিশাকা।

অ্যান্টিগা টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে ৪ উইকেটে ২৫৫ করেছে লঙ্কানরা। হাতে ৫ উইকেট নিয়ে লিড নিয়ে ফেলেছে ১৫৩ রানের। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৯১ করে আউট হন ওশাদা। থিরিমান্নে থামেন ৭৬ করে। ধনঞ্জয়া ৪৬ আর নিশাকা ব্যাট করছেন ২১ রানে।

আগের দিনের ৮ উইকেটে ২৬৮ রান নিয়ে শুরু করা ওয়েস্ট ইন্ডিজ আর ৩ রান যোগ করেই গুটিয়ে যায়। রাহকিম কর্নওয়াল (৬১) ও শ্যানন গ্যাব্রিয়েলকে এক ওভারের মধ্যেই তুলে নেন বিশ্ব ফার্নেন্দো।

বড় ব্যবধানে পিছিয়ে দ্বিতীয় ইনিংস শুরুর পরই ধাক্কা খায় শ্রীলঙ্কা। পঞ্চম ওভারে দিমুথ করুনারত্নেকে তুলে নেন কেমার রোচ।  এরপর ওশাদা-থিরিমান্নের  শক্ত প্রতিরোধ। দ্বিতীয় উইকেটে দুজনে ব্যাট করেছেন পরের ৫০ ওভার। রান আনেন ১৬২। কিছুটা ইতিবাচক খেলা ওশাদা এগুচ্ছিলেন তিন অঙ্কের দিকে। কিন্তু ৯ রানের জন্য তা পাওয়া হয়নি তার।  বাংলাদেশ সফরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের  ব্যাটিং হিরো কাইল মায়ার্স বল হাতে নিয়ে পান ব্রেক থ্রো। ওশাদাকে উইকেটের পেছনে ক্যাচ বানানোর পর দীনেশ চান্দিমালকেও একইভাবে ফিরিয়ে দেন তিনি।

আচমকা দুই উইকেট হারানো দল খানিক পর হারিয়ে ফেলে থিরিমান্নেকেও। দ্রুত উইকেট পতন থামান নিশাকা-ধনঞ্জয়া। এই দুই ব্যাটসম্যানকে আর বিচ্ছিন্ন করতে পারেনি ক্যারিরিয়ানরা। ৬৬ রানের জুটিতে দিন পার করেছেন তারা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস : ১৬৯

ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম ইনিংস : ২৭১

শ্রীলঙ্কা প্রথম  ইনিংস : ৮৬ ওভারে ২৫৫/৪ (থিরিমান্নে ৭৬, করুনারত্নে ৩, ওশাদা ৯১, চান্দিমাল ৪, ধনাঞ্জয়া ৪৬, নিসানকা ২১; রোচ ২/২৮, গ্যাব্রিয়েল ০/৩০, হোল্ডার ০/২২, জোসেফ ০/৪৬, কর্নওয়াল ০/৮৫, ব্র্যাথওয়েট ০/২৪, মেয়ার্স ২/১০)।

 

 

 

Comments

The Daily Star  | English
Missing AL MP’s body found in Kolkata

Plot afoot weeks before MP’s arrival in Kolkata

Interrogation of cab driver reveals miscreants on April 30 hired the cab in which Azim travelled to a flat in New Town, the suspected killing spot

14m ago