মিশরে ২ ট্রেনের সংঘর্ষে নিহত অন্তত ৩২

শুক্রবার দক্ষিণ মিশরে দুটি ট্রেনের সংঘর্ষে অন্তত ৩২ জন নিহত এবং ১০৮ জন আহত হয়েছেন। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
রাজধানী কায়রো থেকে প্রায় পাঁচশ কিলোমিটার দক্ষিণে সোহাগ শহরের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ছবি: এএফপি

শুক্রবার দক্ষিণ মিশরে দুটি ট্রেনের সংঘর্ষে অন্তত ৩২ জন নিহত এবং ১০৮ জন আহত হয়েছেন। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আল জাজিরা জানায়, এই সংঘর্ষের ফলে তিনটি যাত্রীবাহী গাড়ি উল্টে যায় এবং ঘটনাস্থল থেকে স্থানীয় প্রচার মাধ্যমে প্রচারিত ভিডিওতে দেখা গেছে, ওয়াগনগুলো ভেতরে আটকে আছে এবং এর চারপাশ ধ্বংসাবশেষ পড়ে আছে। কিছু যাত্রীকে অচেতন মনে হচ্ছিল এবং অনেকের রক্তপাত হচ্ছিল।

মিশরের রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, রাজধানী কায়রো থেকে প্রায় পাঁচশ কিলোমিটার (২৬০ মাইল) দক্ষিণে সোহাগ শহরের কাছে একটি ট্রেন দ্রুত ব্রেক করার ফলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

তারা বলেছে, ব্রেকের ফলে একটি ট্রেন থেমে যায় এবং অন্যটি পিছন থেকে ধাক্কা মারে। কর্তৃপক্ষ এ ঘটনার আরও তদন্ত করছে।

পাবলিক প্রসিকিউটরের অফিস এ ঘটনার তদন্তের আদেশ দিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি নিরাপত্তা সূত্র রয়টার্সকে বলেছে, ‘দ্রুত গতিতে যাওয়ার সময় ট্রেন দুটির সংঘর্ষ হয়, ফলে দুটি বগি ধ্বংস হয়ে যায় এবং এক তৃতীয়াংশ উল্টে যায়।’

মিশরের প্রেসিডেন্ট আব্দেল ফাত্তাহ এল-সিসি এই ভয়াবহ দুর্ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের শাস্তির প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

তিনি টুইট করেন, ‘তাদের কারো একজনের অবহেলার কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় জড়িতদের অবশ্যই শাস্তি পেতে হবে।’

মধ্যপ্রাচ্য বিশ্লেষক ইয়েহইয়া ঘানেম বলেছেন, এ ধরনের ঘটনায় অতীতে নিম্ন স্তরের কর্মীদের শাস্তি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু, মিশরের বিশাল এবং ক্ষয়প্রাপ্ত রেল ব্যবস্থার কাঠামোগত সমস্যার সমাধান করতে ব্যর্থ হয়েছে সরকার।

ঘানেম আল জাজিরাকে বলেন, ‘রেলওয়েসহ মিশরের জনগণের মৌলিক সেবার ক্ষেত্রে গুরুতর সমস্যায় আছে। এ ধরনের দুর্ঘটনা কখনো কখনো সাপ্তাহিক ভিত্তিতে ঘটে। এই দায় সিস্টেমের, শাসকগোষ্ঠীর, স্বয়ং প্রেসিডেন্টের।’

Comments

The Daily Star  | English

Confiscate ex-IGP Benazir’s 119 more properties: court

A Dhaka court today ordered the authorities concerned to confiscate assets which former IGP Benazir Ahmed and his family members bought through 119 deeds

16m ago