‘টি-টোয়েন্টিতে বড় দল-ছোট দল বলে কিছু নেই’

টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভালো কিছু উপহার দেওয়ার আশাবাদ শুনিয়েছেন টাইগারদের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।
mahomudullah
ছবি: বিসিবি

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশ নিজেদের সেরাটা দেখাতে পারেনি। এমনটা জানিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছেন টাইগারদের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। তবে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভালো কিছু উপহার দেওয়ার আশাবাদ শুনিয়েছেন তিনি।

আগামীকাল রবিবার মাঠে গড়াচ্ছে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ডের তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ম্যাচের ভেন্যু হ্যামিল্টনের সেডন পার্ক। খেলা শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টায়।

শনিবার নিউজিল্যান্ড থেকে পাঠানো ভিডিও বার্তায় মাহমুদউল্লাহ বলেছেন, ওয়ানডে সিরিজের বিবর্ণ পারফরম্যান্স নিয়ে তারা আশাহত, ‘অবশ্যই, আমরা আশানুরূপ পারফর্ম করতে পারিনি। এই কারণে আমরা খুব আশাহত। কারণ, আমরা বিশ্বাস করি যে, আমাদের যতটুকু সামর্থ্য আছে, সে অনুযায়ী আমরা পারফর্ম করতে পারিনি। এটা বলা সত্ত্বেও (আমি মনে করি) টি-টোয়েন্টি এমন একটা সংস্করণ, যেখানে বড় দল-ছোট দল বলতে কিছু নেই।’

দলগত পারফরম্যান্সে টি-টোয়েন্টিতে যেকোনো দলকে হারানোর আত্মবিশ্বাসের কথাও জানিয়েছেন তিনি, ‘র‍্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর দল হোক কিংবা নয়-দশ নম্বর দল, নির্দিষ্ট দিনে যদি কোনো দল ভালো পারফর্ম করে, এক-দুইজন খেলোয়াড় যদি অসাধারণ পারফর্ম করে (তাহলে যে কাউকে হারানো সম্ভব)। আমরা একটা দল হিসেবে যদি ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিংয়ের পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন করতে পারি, প্রয়োগের মাত্রাটা যদি ভালো থাকে, আমরা যেকোনো দলকে হারাতে পারব। এটা আমাদের বিশ্বাস।’

পরিসংখ্যান ও অতীত অভিজ্ঞতা অবশ্য বাংলাদেশের পক্ষে নেই। এখন পর্যন্ত টি-টোয়েন্টিতে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি তারা হয়েছে সাতবার। প্রতিবারই তাদের কপালে জুটেছে হারের তিক্ত স্বাদ। তাছাড়া, নিউজিল্যান্ডের মাটিতে স্বাগতিকদের বিপক্ষে এখনও কোনো জয় নেই বাংলাদেশের। সব সংস্করণ মিলিয়ে ব্ল্যাকক্যাপসরা এগিয়ে ২৯-০ ব্যবধানে।

আশার পালে হাওয়া দিয়ে অভিজ্ঞ ডানহাতি ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ যোগ করেছেন, ‘টি-টোয়েন্টি সংস্করণটাই এমন যে, এটা একটা দিনের খেলা। যে ওইদিন ভালো করবে, তাদের পক্ষেই ভালো ফল করাটা সম্ভব।’

Comments

The Daily Star  | English

NBR suspends Abdul Monem Group's import, export

It also instructs banks to freeze the Group's bank accounts

40m ago