করোনা ঝুঁকির মধ্যেই সুজানগর পৌর নির্বাচন আজ

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকির মধ্যেই তিন দফায় স্থগিত হয়ে যাওয়া পাবনার সুজানগর পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।
সুজানগর পৌরসভা কার্যালয়। ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকির মধ্যেই তিন দফায় স্থগিত হয়ে যাওয়া পাবনার সুজানগর পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

আজ রোববার সকাল থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভোট গ্রহন শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে রিটার্নিং অফিস।

রিটার্নিং অফিস সূত্রে জানা যায়, পাবনার সুজানগর পৌরসভা নির্বাচন তৃতীয়বারের মতো স্থগিত ঘোষণার দুদিন পর নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয় ৪ এপ্রিল। সেই ঘোষণা অনুযায়ী আজ রোববার সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে।

এর আগে সীমানা ও ভোটাধিকার জটিলতায় উচ্চ আদালতে দ্বারস্থ হওয়া পক্ষ-বিপক্ষের রিটের প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন থেকে পরপর তিন বার স্থগিত করা হয় সুজানগর পৌরসভা নির্বাচন।

নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের উপসচিব মো. আতিয়ার রহমানের সই করা এক প্রজ্ঞাপনে গত ১ এপ্রিল নির্বাচনের নতুন ওই তারিখ ঘোষণা করা হয় বলে জানিয়েছেন সুজানগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. রওশন আলী।

এর আগে গত ৩১ মার্চ নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা থাকলেও মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগের রিট পিটিশন নং ৯৬৪৪/২০২০’র প্রেক্ষিতে ভোট গ্রহণের মাত্র দুদিন আগে গত ২৯ মার্চ নির্বাচন কমিশন নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করেন।

তবে গত ৩১ মার্চ মহামান্য হাইকোর্টের আপিল বিভাগ ঐ রিট পিটিশন খারিজ করে দেওয়ায় নির্বাচন স্থগিত ঘোষণার দুদিন পর আবার নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়।

সুজানগর উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি মনোনীত দুই মেয়র প্রার্থীর মধ্যে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সাবেক মেয়র কামরুল হুদা কামাল বিশ্বাস গত ১৫ মার্চ মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেওয়ায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র নির্বাচিত হন।

নির্বাচনে নয়টি ওয়ার্ডে কেবল সংরক্ষিত আসনে মহিলা কাউন্সিলর পদে নয় জন ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩২ জনসহ মোট ৪১ জন প্রার্থীর মধ্যে এ ভোটযুদ্ধ অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলে জানিয়েছে রিটার্নিং অফিস।

নির্বাচনে ১০ হাজার ২৬১ জন পুরুষ ও ১০ হাজার ২২৩ জন নারীসহ মোট ২০ হাজার ৮৪৭ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

সুজানগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. রওশন আলি দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘করোনা ঝুঁকির মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে ভোটগ্রহন চলছে। ভোটকেন্দ্রে হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখা হয়েছে। নির্বাচনে ভোট দিতে আসা ভোটারদের দূরত্ব মেনে লাইনে দাঁড়ানোর জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া মাস্ক পরে ভোট কেন্দ্রে আসতে কঠোরভাবে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। মাস্ক ছাড়া কেউ ভোট দিতে পারবে না।’

আরও পড়ুন: সব নির্বাচন স্থগিত

Comments

The Daily Star  | English

Foreign airlines’ $323m stuck in Bangladesh

The amount of foreign airlines’ money stuck in Bangladesh has increased to $323 million from $214 million in less than a year, according to the International Air Transport Association (IATA).

14h ago