কলকাতার পারফরম্যান্স হতাশাজনক, টুইটারে শাহরুখ

কলকাতার হার আক্ষেপে পুড়িয়েছে দলটির মালিক শাহরুখ খানকে।
rana and deepak
ছবি: আইপিএল ওয়েবসাইট

জয়ের জন্য ৩১ বলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের চাই ৩১ রান। হাতে উইকেট ৭টি। অথচ তাদের হাতের মুঠোয় থাকা ম্যাচটি কিনা জিতে নিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স! কলকাতার এমন হার আক্ষেপে পুড়িয়েছে দলটির মালিক শাহরুখ খানকে। বলিউড বাদশাহ খ্যাত তারকা ম্যাচের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে প্রকাশ করেন তীব্র হতাশা।

মঙ্গলবার ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) আরেকটি রোমাঞ্চকর লড়াই মঞ্চস্থ হয়। চেন্নাইয়ের এম চিদাম্বরম স্টেডিয়ামে ১০ রানের নাটকীয় জয় পায় আসরের শিরোপাধারী মুম্বাই। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৫২ রানে অলআউট হয় তারা। জবাবে কলকাতা পুরো ওভার খেলে করতে পারে ৭ উইকেটে ১৪২ রান।

ম্যাচের শেষদিকে ছড়ায় দারুণ উত্তেজনা। নিতিশ রানার হাফসেঞ্চুরিতে নিশ্চিত জয়ের পথে থাকা কলকাতা পা হড়কায় অবিশ্বাস্যভাবে। শেষ ৩১ বলে তারা স্কোরবোর্ডে যোগ করতে পারে মোটে ২০ রান। এসময়ে সাজঘরে ফেরত যান রানা, সাকিব আল হাসান, আন্দ্রে রাসেল ও প্যাট কামিন্স। মুম্বাইকে জেতাতে দুই স্পিনার রাহুল চাহার ও ক্রুনাল পান্ডিয়া এবং দুই পেসার জাসপ্রিত বুমরাহ ও ট্রেন্ট বোল্ট করেন আঁটসাঁট বোলিং। তবে কলকাতার ব্যাটসম্যানদের উইকেট ছুঁড়ে আসা ও হঠাৎ করে ব্যাটে বল লাগাতে ভুলে যাওয়ার দায়ও কম নয়!

দল তালগোল পাকিয়ে সহজ সমীকরণ মেলাতে ব্যর্থ হওয়ায় হতাশ শাহরুখ ক্ষমা চেয়ে করেন টুইট, ‘হতাশাজনক পারফরম্যান্স। অন্তত এটা বলতে হবে। ভক্তদের কাছে ক্ষমা চাইছে কলকাতা নাইট রাইডার্স।’

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে একই সুর শোনা যায় কলকাতার অধিনায়ক ও ইংল্যান্ডের তারকা ব্যাটসম্যান ওয়েন মর্গ্যানের কণ্ঠে, ‘খুবই হতাশাজনক। বেশিরভাগ সময়েই আমরা ভালো ক্রিকেট খেলেছি। বিশেষ করে, ম্যাচের প্রথম অংশে এবং লক্ষ্য তাড়ার বড় একটা সময়ে। কিন্তু শেষদিকে ভুল করে ফেলেছি আমরা। আশা করি, ভুলগুলো শুধরে নিতে পারব।’

উল্লেখ্য, মুম্বাইয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের বাঁহাতি অলরাউন্ডার সাকিব বল হাতে উজ্জ্বল থাকলেও ব্যাট হাতে নিরাশ করেন। ৪ ওভারে ২৩ রান দিয়ে তিনি নেন ১ উইকেট। পরে পাঁচ নম্বরে নেমে বাজে শটে ক্যাচ দিয়ে আউট হন। চার মেরে ইনিংস শুরুর পর ৯ বলে ৯ রান করেন তিনি।

Comments

The Daily Star  | English