আজ রাত থেকে দিল্লিতে কারফিউ

করোনা সংক্রমণ রোধে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে আজ সোমবার রাত থেকে সপ্তাহব্যাপী কারফিউ ঘোষণা করা হয়েছে।
দিল্লির একটি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্ত রোগীকে সেবা দিচ্ছেন এক স্বাস্থ্যকর্মী। ৫ সেপ্টেম্বর ২০২০। ছবি: রয়টার্স

করোনা সংক্রমণ রোধে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে আজ সোমবার রাত থেকে সপ্তাহব্যাপী কারফিউ ঘোষণা করা হয়েছে।

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল আজ এ ঘোষণা দিয়েছেন বলে দ্য ডেইলি স্টারের দিল্লি সংবাদদাতা জানিয়েছেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির তথ্য অনুযায়ী, স্থানীয় সময় আজ রাত ১০টা থেকে এই কারফিউ শুরু হবে। যা কার্যকর থাকবে আগামী ২৬ এপ্রিল ভোর ৫টা পর্যন্ত।

দিল্লিতে করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি সবচেয়ে শোচনীয়। দ্বিতীয় ঢেউয়ে প্রথম ঢেউয়ের মতোই সংক্রমণ সংখ্যার দিক থেকে তালিকার প্রথম দিকেই দিল্লির অবস্থান।

আজ কারফিউ ঘোষণার আগে দিল্লির লেফট্যানেন্ট গভর্নর অনিল বাইজালের সঙ্গে বৈঠক করেন কেজরিওয়াল। ওই বৈঠকেই কারফিউয়ের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়।

বৈঠকের পর কেজরিওয়াল বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় এই কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। এই লকডাউন দিল্লি সরকারকে হাসপাতালে শয্যা বাড়ানো ও অক্সিজেন সরবরাহের ক্ষেত্রে সহায়তা করবে।’

তিনি জানান, প্রতিদিন যেভাবে সংক্রমণ বাড়ছে, তাতে দিল্লির স্বাস্থ্যব্যবস্থা অনেক বেশি চাপের মধ্যে পড়েছে। গুরুতর অসুস্থদের জন্য হাসপাতালের শয্যা ও অক্সিজেন সিলিন্ডার নিশ্চিত করা কঠিন হয়ে পড়েছে।

কেন্দ্রীয় সরকার পরিচালিত হাসপাতালগুলোতে দ্রুত শয্যা বাড়ানোর ও পর্যাপ্ত অক্সিজেন সিলিন্ডার সরবরাহের আবেদন জানিয়ে ইতোমধ্যে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে চিঠি দিয়েছেন কেজরিওয়াল।

কারফিউ চলাকালীন বেসরকারি অফিসের কর্মীরা বাড়ি থেকে অফিস করবেন। শুধু সরকারি অফিস ও জরুরি সেবা অফিসগুলো এ সময় খোলা থাকবে।

গতকাল রোববার দিল্লিতে নতুন করে ২৫ হাজার ৪৬২ জনের করোনা শনাক্ত হয়। আজ সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছে ২৩ হাজার ৫০০ জন। শনাক্তের হার ৩০ শতাংশ।

এর আগে গত শনিবার ২৪ হাজার ৩৭৫ জনের করোনা শনাক্ত হয় দিল্লিতে। মারা যায় ১৬৭ জন।

Comments

The Daily Star  | English

Ready to counter any militant attack targeting Pahela Baishakh, says Rab DG

Rab DG M Khurshid Hossain reassured public of comprehensive security arrangements for Pahela Baishakh celebrations

34m ago