হেফাজতের গ্রেপ্তার নেতাদের নিঃশর্ত মুক্তি চান বাবুনগরী

হেফাজতে ইসলামের গ্রেপ্তার নেতাদের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছেন সংগঠনটির আমির জুনায়েদ বাবুনগরী। আজ সোমবার নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে পোস্ট করা এক ভিডিওবার্তায় তিনি এ দাবি করেন।
Babunagari-1.jpg
হেফাজতে ইসলামের আমির জুনায়েদ বাবুনগরী। ছবি: সংগৃহীত

হেফাজতে ইসলামের গ্রেপ্তার নেতাদের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছেন সংগঠনটির আমির জুনায়েদ বাবুনগরী। আজ সোমবার নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে পোস্ট করা এক ভিডিওবার্তায় তিনি এ দাবি করেন।

বাবুনগরী বলেন, ‘মাহে রমজানে প্রশাসন হেফাজতের ওলামাদের, ছাত্রদের, তৌহিদী জনতাকে হয়রানি করছে। মানুষ ঘরে ফিরতে পারে না। বাইরে বাইরে ঘুরতে হচ্ছে। সেহরির সময়, ইফতারের সময় নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। মাওলানা বশিরউল্লাহকে তারাবি নামাজের সময় ধরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ অবস্থায় দেশ চলতে পারে না। এ হল এখনকার অবস্থা।’

‘মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী, মাওলানা জোনায়েদ আল হাবিব, মামুনুল হক, মাওলানা মঞ্জুরুল হকসহ ওলামা, তৌহিদী জনতা, ছাত্রজনতাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘মিথ্যা মামলা দিয়ে অনেককে হয়রানি করা হচ্ছে। এ ধরপাকড়, গ্রেপ্তারি, মিথ্যা মামলা, হয়রানি বন্ধ করুন এবং আমাদের ওলামাসহ নির্দোষ মানুষদের যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাদের অবিলম্বে নিঃশর্তে মুক্তি দিন।’

ভিডিওবার্তায় হেফাজত আমির বলেন, ‘২০১৩ সালের মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে অনেককে, আট-নয় বছর পর। ২০১৩ সালের মামলা ডাহা মিথ্যা। এসব মামলায় যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাদেরও মুক্তি দান করুন।’

‘কাউকে ক্ষমতায় বসানো বা কাউকে ক্ষমতা থেকে নামানো হেফাজতের উদ্দেশ্য নয়’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘সরকারের প্রতি আমার অনুরোধ, হেফাজতের উদ্দেশ্য কাউকে ক্ষমতায় বসানো, এমন গুজবে আপনারা কান দেবেন না।’

গত ২৬ মার্চ থেকে শুরু হওয়া দেশব্যাপী হেফাজতের তাণ্ডব সম্পর্কে বাবুনগরী বলেন, ‘২৬ মার্চ হেফাজতে ইসলামের কোনো কর্মসূচি ছিল না। আমাদের কোনো কমান্ড ছিল না। আমি নিজেই হাটহাজারী মাদ্রাসায় ছিলাম না। দূরে সফরে ছিলাম। বায়তুল মোকাররমেও কিছু মুসল্লি ও ক্যাডারদের মাঝখানে কিছু অঘটন হয়ে গেছে। ক্যাডাররা মুসল্লিদেরকে মারধর করেছে মসজিদের ভেতরে। এরপরে, হাটহাজারী মাদ্রাসায় হয়েছে। এজন্য আমরা বেশি দুঃখিত। আবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়ও কিছু ঘটনা হয়ে গেছে। মোট কথা হলো, এসব কোনো ঘটনায়ই হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কর্মসূচি ছিল না, কোনো কমান্ড ছিল না।’

‘ভারত প্রধান মোদি আসা উপলক্ষে আমাদের হেফাজতে ইসলামের কোনো কর্মসূচি ছিল না। কিছু কিছু বক্তারা বক্তৃতায় কিছু বললেও, মোদি আসার ব্যাপারে কোনো কর্মসূচি ছিল না। এই হলো হেফাজতের অবস্থান,’ বলেন তিনি।

এসময় তিনি দেশবাসী ও তৌহিদী জনতাকে কোনো সংঘাতে না জড়িয়ে ধৈর্য ধারণের অনুরোধ করেন।

Comments

The Daily Star  | English

14 killed as truck ploughs thru multiple vehicles in Jhalakathi

It is suspected that the truck driver lost control over his vehicle due to a brake failure

1h ago